উখিয়া নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৮/১১/২০২৩ ৯:৪০ এএম

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণ পরিবেশ নিশ্চিত করতে সাড়ে সাত লাখ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য মোতায়েন করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এর মধ্যে নির্বাচনের ১০ দিন আগেই মাঠে নামবে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) ৪৭ হাজার সদস্য। তারা ভোটের আগে পরে ১৩ দিন মাঠে থাকবে।

সোমবার (২৭ নভেম্বর) ইসির অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, সবার আগে মাঠে নামবে বিজিবি। ভোটের পরে দুই দিন, ভোটের দিন এবং ভোটের আগে ১০ দিন, মোট ১৩ দিনের জন্য এ বাহিনীর সদস্যরা মাঠে থাকবেন। তবে প্রয়োজন হলে আরও বেশি দিন তাদের রাখা হতে পারে।

অশোক কুমার দেবনাথ আরও বলেন, সংসদ নির্বাচনের জন্য এবার সাড়ে সাত লাখ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য নিয়োজিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইসি। এক্ষেত্রে আনসারের ৫ লাখ ১৬ হাজার সদস্য, কোস্টগার্ডের ২ হাজার ৩৫০ জন, বিজিবির ৪৬ হাজার ৮৭৬ সদস্য, র‌্যাবসহ থাকবে ১ লাখ ৮২ হাজার ৯১ জন। ভোটের নিরাপত্তায় নিয়োজিত থাকবেন সাত লাখ ৪৭ হাজার ৩২২ জন সদস্য।

এই বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যের জন্য বাজেট কত ধরা হয়েছে- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে আশোক কুমার বলেন, তাদের দিক থেকে র‍্যাঙ্ক অনুযায়ী একজন পুলিশের সর্বনিম্ন ভাতা ৫৩৬ টাকা, সর্বোচ্চ ১২০০ টাকা। র‍্যাবও একই পরিমাণ পাবে। বিজিবির সর্বনিম্ন ভাতা ৪০০ টাকা, সর্বোচ্চ ১২২৫ টাকা। কোস্টগার্ড সদস্যদের সর্বনিম্ন ভাতা ৬৩৭ টাকা, সর্বোচ্চ ১৮০০ টাকা। আনসার সদস্যদের সর্বনিম্ন ভাতা ১০০০ টাকা, সর্বোচ্চ ১০৫০ টাকা। তবে এটি চূড়ান্ত কোনো বাজেট নয়। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে এ বাজেট দেওয়া হয়েছে। আমরা এটি বিবেচনা করে পরবর্তীতে চূড়ান্ত করব

পাঠকের মতামত

সমুদ্রপথে সেনা ও সীমান্তরক্ষীদের ফিরিয়ে নিতে চায় মিয়ানমার

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের সেনাবাহিনী, সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি), পুলিশ, ইমিগ্রেশনসহ বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদের দেশটি নৌবাহিনীর ...