প্রকাশিত: ০৫/০৯/২০১৬ ১২:৩২ পিএম

dodokনিউজ ডেস্ক::
দুনীতির মাধ্যমে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মোহাম্মদ আমিনকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। সকালে রাজধানীর মগবাজারের বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

দুর্নীতি দমন কমিশনের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য ঢাকাটাইমসকে জানান, এই সরকারি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগের পর অনুসন্ধানে প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে দুদক। এরপরই তাকে গ্রেপ্তারের সিদ্ধান্ত হয়।

তবে সুনির্দিষ্ট কী অভিযোগে এই সরকারি কর্মকর্তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তা এখনও জানায়নি ‍দুদক। তবে সংস্থাটির কর্মকর্তারা জানান, মন্ত্রণালয় থেকেই উপসচিব আমিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ এসেছিল।

দুদক আইন অনুযায়ী, দুর্নীতির অভিযোগে অভিযুক্তদেরকে গ্রেপ্তারের ক্ষমতা রয়েছে সংস্থাটির। মামলার তদন্ত পর্যায়ে কর্মকর্তারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারেন। সে ক্ষমতাবলে তদন্তের প্রয়োজনে তাঁরা যে কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়।

দুদকের বর্তমান চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই গত মার্চ থেকে গ্রেপ্তার অভিযান জোরদার হয়েছে সারা দেশেই। দুদক কর্মকর্তারা জানান, প্রয়োজনে যে কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করতে কমিশনের পক্ষ থেকে দুর্নীতিবিরোধী সংস্থাটির স্থানীয় পর্যায়ের কর্মকর্তাদেরকে নির্দেশনা পাঠানো হয়।

গত ছয় মাসে দুদকের মামলায় জনস্বাস্থ্য ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী, সাবেক সিভিল সার্জন, ব্যাংকার, রাজউক কর্মকর্তা, ব্যাংক কর্মকর্তাসহ বেশ কয়েকজন গ্রেপ্তার হয়েছেন। তবে সরকারি প্রশাসনের কেন্দ্রবিন্দু সচিবালয়ের উপসচিব পর্যায়ের কর্মকর্তা সাম্প্রতিক অভিযানে এই প্রথম গ্রেপ্তার হলেন।

পাঠকের মতামত

মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকের ভল্ট ঘিরে রেখেছে পুলিশ

রাজধানী‌র ধোলাইখা‌লে মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংকে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এ‌নে‌ছে ফায়ার সা‌র্ভিস। আগুন নিয়ন্ত্রণের পর ব্যাংকের ...

‘বাংলাদেশ-মিয়ানমার রাজি থাকা সত্ত্বেও রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন না হওয়ার কারণ খুঁজতে হবে’

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ...