প্রকাশিত: ১২/০৯/২০১৬ ৪:৫৩ পিএম

14329358_824443801026180_530523254_oআজিজুল হক, নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান) সংবাদদাতা :
বান্দরবান পার্বত্য ও কক্সবাজার জেলায় পবিত্র ঈদুল অাযাহাকে সামনে রেখে বেপরোয়া হয়ে উঠেছে ইয়াবা ব্যাবসায়ী,হুন্ডি ব্যাবসায়ী ও চোরাকারীরা সদস্যরা। ঘুমধুম ও তুমব্রু সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে প্রতিদিন আসছে মিয়ানমারের তৈরি সিগারেট ও নিষিদ্ধ মিয়ারমার পন্য। মাঝে মধ্যে বিজিবির সদস্যরা স্বল্প সংখ্যক অবৈধ পন্য অাটক করলেও পাচারকারীরা থেকে যাচ্ছে ধরা-ছোয়ার বাইরে। অাজ
সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম ইউনিয়নের বেতবুনিয়া বাজার এলাকায় উদ্ধারকৃত নিম্নমানের ২৪৫০ প্যাকেট মার্বেল সিগারেট ধ্বংস করা হয়। ধ্বংসকৃত সিগারেটগুলোর অানুমানিক মুল্য ১লক্ষ ২২ হাজার ৫ শত টাকা বলে জানিয়েছে বিজিবি। ইউপি চেয়ারম্যান জাহাংগীর অাজিজ চৌধুরী এক প্রতিক্রিয়ায় বলেন স্থানীয় যুব সমাজ যেন স্বল্প মূল্যের এসব নিম্নমানের সিগারেটের কারণে ধুমপানে আসক্ত না হয় সে ব্যাপারে সবাইকে সচেতন থাকতে হবে।ধ্বংস অনুষ্টানে উপস্থিত ছিলেন ঘুমধুম বিওপির কমান্ডার নায়েব সুবেদার মোঃ সাইফুল ইসলাম,প্যানেল চেয়ারম্যান কামাল উদ্দিন,ঘুমধুম ইউনিয়ন অাওয়ামীলীগের সভাপতি খালদ সরওয়ার হারেছ,কৃষকলীগ সভাপতি গোলাম ছোবাহান সিকদার,৩ নং ঘুমধুম ইউনিয়নের ৪, ৫ ও ৬ নং ওয়ার্ডের মহিলা ইউপি সদস্য খালেদা বেগম,৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য অাব্দুল করিম, আনসার বিডিপি কমান্ডার আবদুর রহমান,নুর হুসাইন, বিজিবির বিশেষ গোয়েন্দা ওবাইদুর দসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও গণমাধ্যমকর্মীগণ উপস্থিত ছিলেন।
উল্লেখ্য, ৩৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়ন কক্সবাজারের আওতাধীন ঘুমধুম বিওপির সদস্যরা বিকাল ৫ টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কচুবনিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সংলগ্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২,৪৫০ প্যাকেট মার্বেল সিগারেট ১,৬৮০ পিছ কুইনলী ক্রিম জব্দ করে।পন্যগুলোর মুল্য সর্বসাকুল্যে ২ লক্ষ ৫৬ হাজার ৯ শত টাকা বলে জানিয়েছেন ঘুমধুম বিজিবি।তথ্যটি নিশ্চিত করেন কক্সবাজার ৩৪ বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের পরিচালক ইমরান উল্লাহ সরকার।

পাঠকের মতামত

বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানালেন মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত

সীমান্তে স্থিতিশীলতা ও সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাবের জন্য বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত অং কিউ ...