প্রকাশিত: ০১/০৮/২০১৬ ৭:৩৫ এএম

এম এস রানা, উখিয়া::
রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের পশ্চিম গোয়ালিয়া গ্রামের রমিজ আহম্মদের পুত্র মুদি দোকানী শফি আলম (১৮)কে রাতের আধাঁরে নির্মম ভাবে কুপিয়ে হত্যার মুল পরিকল্পনা ও হত্যাকারি একই এলাকার হাজি আমানত উল্লাহর পুত্র চিহ্নিত সন্ত্রাসী বহু অপকর্মের হোতা মোঃ ফারুক (২৭) কে আটক করে রামু থানা পুলিশ।  জানা যায় রামু থানার পুলিশের এস আই সন্জয় কুমার দে এর নেতৃত্বে একদল পুলিশ গত কাল ৩১ জুলাই সকাল ১০ টার সময় পশ্চিম গোয়ালিয়া চৌমহনী বাজার থেকে তাকে আটক করা হয়।  আটক কৃত ফারুক প্রাথমিক জিঙ্গাসাবাদে শফি আলম হত্যার সাথে সারাসরি জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে বলে জানা গেছে।  এব্যাপারে জানতে চাওয়ার জন্য রামু থানার এস আই সন্জয় কুমার দে র মোবাইলে ফোন দিলে ব্যস্ত আছে বলে লাইন কেটে দেন।
উল্লেখ্য পশ্চিম গোয়ালিপালং গ্রামের রমিজ উদ্দিনের পুত্র স্হানীয় বাজারের   মুদির দোকানী শফি আলমকে গত ১৬ জুলাই শনিাবার রাতের কোন এক সময় এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা নির্মম ভাবে কুপিয়ে জবাই করে হত্যা করে লাশ তারই দোকানের পিছনের ফেলে যায় ।

পাঠকের মতামত