প্রকাশিত: ১৪/১০/২০১৬ ৭:২৯ পিএম

109743_unnamed-6ঢাকা: বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সঙ্গে ঢাকায় সফররত চীনের প্রেসিডেন্টে শি জিনপিংয়ের বৈঠকে দুই দেশের পারষ্পারিক স্বার্থ নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

১৪ অক্টোবর শুক্রবার রাজধানীর লা মেরেডিয়ান হোটেলে চীনের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে খালেদা জিয়ার বৈঠক শেষে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর সাংবাদিকদের এ কথা জানান। বৈঠকটি বিকাল সাড়ে ৫টা ৩৩ মিনিটে শুরু হয়ে ৪০ মিনিট পর শেষ হয়। এর আগে বিএনপি চেয়ারপারসন বিকাল ৫টায় হোটেলে পৌঁছান।

বাংলাদেশের উন্নয়নে চীন পাশে থাকবে বলে আশাবাদ করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদি দল বিএনপি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘খালেদা জিয়ার সঙ্গে চীনের প্রেসিডেন্টের বৈঠকে দুই দেশের পারষ্পারিক স্বার্থ নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বৈঠকে খালেদা জিয়া জানিয়েছেন, শহীদ জিয়াউর রহমানের সরকারের সময় থেকে চীনের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক শুরু হয়। এ সম্পর্ক অব্যাহত রয়েছে। বাংলাদেশ আশা করে, উন্নয়নের ক্ষেত্রে চীন বাংলাদেশের পাশে থাকবে।’

মহাসচিব আরো জানান, চীন সবসময় বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ ও অকৃত্রিম বন্ধু। বৈঠকে চীনা প্রেসিডেন্ট আশা প্রকাশ করেন, ভূ-রাজনৈতিক ক্ষেত্রে তার দেশ যে ভূমিকা রাখছে, তাতে বাংলাদেশ সবসময় চীনের পাশে থাকবে।

বৈঠকে খালেদা জিয়ার সঙ্গে ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসনে, লে. জেনারেল মাহবুবুর রহমান (অব.), নজরুল ইসলাম খান, উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আহমেদ ও রিয়াজ রহমান।

পাঠকের মতামত

সমুদ্রপথে সেনা ও সীমান্তরক্ষীদের ফিরিয়ে নিতে চায় মিয়ানমার

বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া মিয়ানমারের সেনাবাহিনী, সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিজিপি), পুলিশ, ইমিগ্রেশনসহ বিভিন্ন সংস্থার সদস্যদের দেশটি নৌবাহিনীর ...