প্রকাশিত: ১৯/০৯/২০১৭ ৭:২২ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ১:২১ পিএম

কক্সবাজার প্রতিনিধি::
উখিয়া উপজেলার কুতুপালং এলাকায় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের হামলায় স্থানীয় চিকিৎসক আব্দুল মুজিব গুরুতর আহত হয়েছে। ১৭ সেপ্টেম্বর রাতে তার নিজ ফামের্সীতে একটি রোহিঙ্গা সিন্ডিকেট এ হামলা চালায়। বর্তমানে আহত মুজিব কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

স্থানীয় সুত্র জানিয়েছেন, অবৈধভাবে শরনার্থী ক্যাম্প স্থাপন করে রেহিঙ্গাদের আশ্রয়ের বিনিময়ে অর্থ হাতিয়ে নিচ্ছিল কুতুপালং এলাকার বহুল আলোচিত রাজা খ্যাত বখতিয়ার ও তার পালিত একদল রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী। এতে বাঁধা প্রদান করে আসছিল কুতুপালং বাজার কমিটির সভাপতি ডাক্তার আব্দুল মুজিব। এ ঘটনায় ক্ষীপ্ত হয়ে গত ১৭ সেপ্টেম্বর রাত ৮টার দিকে কথিত রাজার নেতৃত্বে তার ভাই কবির আহমদ, নজির আহমদ, ভাতিজা সন্ত্রাসী করিম উল্লাহ, আবু তাহেরসহ ১০/১৫ জন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী চাপাতি, দা লাঠি দিয়ে অর্তকিত হামলা চালায়। এ ঘটনায় স্থানীয় ডাক্তার আব্দুল মুজিবের ছোটভাই জয়নাল আবেদীন ও পারভেজও গুরুতর আহত হয়। বর্তমানে আহতরা কক্সবাজার সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ চিকিৎসা গ্রহণ করছেন।স্থানীয়দের ভাষ্যমতে, রখতিয়ার বাহিনীর শক্তির জানান দিতে পরিল্পলিত এ হামলার ঘটনা।

আহত মুজিবের ভাই কফিল উদ্দিন জানান, কুতুপালং এলাকার সামাজিক বনায়নের বনভুমি দখল করে সদ্য আসা আশ্রয়িত রোহিঙ্গাদের মাঝে প্লট বিক্রি করে আসছিল ওই চক্রটি। তাদের এ অবৈধ চাঁদাবাজি’র প্রতিবাদ করায় তারা আমাদের উপর অর্তকিত এই হামলা চালায়। এব্যাপারে আমরা ওই চক্রের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে প্রস্তুতি নিচ্ছি।

ঘটনার ব্যাপারে উখিয়া থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, এটি খুবই দুঃখজনক ঘটনা। এব্যাপারে অভিযোগ পেলে দোষিদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এব্যাপারে কক্সবাজারের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফরাজুল হক টুটুল জানিয়েছেন, মানীয় প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শ রয়েছে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ার নামে যারা অনৈতিক সুবিধা আদায় করবে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাঠকের মতামত

নিজের সম্মানির টাকা মেধাবী শিক্ষার্থীকে দিলেন নাইক্ষ্যংছড়ির ইউএনও

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকারিয়া নিজের প্রাপ্ত সম্মানির টাকা আর্থিক অনুদান হিসেবে প্রদান করলেন ...