প্রকাশিত: ০৯/০৫/২০২২ ৯:৩৩ এএম

গ্রামের বাড়ি পটিয়া থেকে মোটরসাইকেলে করে চট্টগ্রাম শহরে ফিরছিলেন সাংবাদিক শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার। কিন্তু চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের শান্তিরহাট এলাকায় হঠাৎ চলন্ত মোটরসাইকেল পিছলে চলে যায় সড়কের পাশের গর্তে। ১২ মার্চ এ দুর্ঘটনার পর ৩২ ঘণ্টা অজ্ঞান ছিলেন তিনি।

জ্ঞান ফেরার পর সিটি স্ক্যান করে দেখা যায়, দুর্ঘটনায় মস্তিস্কে আঘাত লেগেছে সাংবাদিক শহীদুল্লাহর। সেই সঙ্গে একাধিক ক্ষত সৃষ্টি হয়েছে তার পা ও হাতে। চলন্ত মোটরসাইকেল এভাবে সড়ক থেকে গর্তে পড়ে যাওয়ার কারণ সড়কের পিচে পড়ে থাকা লবণপানি।

শহীদুল্লাহ শাহরিয়ারের মতোই কিছু বুঝে ওঠার আগেই হঠাৎ নিয়ন্ত্রণ হারানো চলন্ত মোটরসাইকেল থেকে পড়ে গিয়ে হাত-পায়ে ফ্রাকচার হয়েছিল চট্টগ্রাম ইতিহাস সংস্কৃতি গবেষণা কেন্দ্রের চেয়ারম্যান আলীউর রহমানের। তার মোটরসাইকেলও দুর্ঘটনায় পড়েছিল সড়কে লবণপানি পড়ে থাকায়।

একইভাবে দুর্ঘটনার শিকার হন চট্টগ্রাম সরকারি কলেজের অফিস সহকারী সায়েদ নূর। এক সন্ধ্যায় পটিয়ায় গ্রামের বাড়িতে ফেরার পথে বেল্লাপাড়া ব্রিজ থেকে নামার সময় মোটরসাইকেলসহ সড়কের নিচের গর্তে পড়ে যান তিনি। গাড়ির গতি কম থাকায় বড় দুর্ঘটনা থেকে বেঁচে গেলেও হাত ও পায়ের চামড়া উঠে গিয়ে অনেকদিন ঘা নিয়ে কষ্ট পান তিনি। ইন্দ্রপুল ব্রিজের নিচে সড়কে পড়ে থাকা লবণপানিতে পিছলে যায় চট্টগ্রাম কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সেমিনার সহকারী শাকিল ও তার এক আত্মীয়কে বহনকারী প্রাইভেট কার।

ফলো করুন-
ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইব করুন সমকাল ইউটিউব
২০১৮ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত এ জায়গায় এরকম দুর্ঘটনায় মৃত্যু ঘটেছে ২৭ জনের। আহত হয়েছেন দেড় শতাধিক। এসব দুর্ঘটনা থেকে সুস্পষ্ট, ট্রাক থেকে লবণপানি পড়ায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের ছয় কিলোমিটার সড়কের পিচ পিচ্ছিল হয়ে বিপজ্জনক জোন হয়ে উঠেছে। প্রতিদিনই এ এলাকায় দুর্ঘটনায় পড়ছেন দুই ও তিন চাকার যানবাহনের যাত্রী ও চালকরা। বিশেষত সন্ধ্যায় দুই ও তিন চাকার যানবাহনের জন্য আতঙ্ক হয়ে উঠেছে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের ছয় কিলোমিটার সড়ক!

এ প্রসঙ্গে হাইওয়ে পুলিশ চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের দোহাজারী হাইওয়ে থানার ওসি মোজাফফর আহমদ সমকালকে বলেন, কক্সবাজার থেকে লবণ নিয়ে এসব ট্রাক পটিয়ায় আসছে। এ ধরনের দুর্ঘটনার প্রতিরোধে প্রথমে আমরা ট্রাক মালিক সমিতির সঙ্গে কথা বলি। ট্রাক থেকে যাতে লবণপানি সড়কে না পড়ে, সেজন্য ডাবল ত্রিপল ব্যবহার করার পরামর্শ দিই। বৈঠকের পর কেউ কেউ ত্রিপল ব্যবহার করলেও অনেকেই করছেন না। এখন যারা সড়কে লবণপানি ফেলছেন, তাদের নিয়মিত মামলা দেওয়া হচ্ছে।

এ প্রসঙ্গে সাংবাদিক শহীদুল্লাহ শাহরিয়ার বলেন, জীবন সেদিন থেমে যেতে পারত। দুর্ঘটনার পর এক রাত আধা দিন ম্যাক্স হাসপাতালে অজ্ঞান হয়ে পড়ে ছিলাম। চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে দুর্ঘটনার কত সংবাদই তো লিখেছি। এবার নিজেই সেই দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছিলাম।

পটিয়ার ইন্দ্রপুলে প্রায় ২০ থেকে ৩০টি লবণ কারখানা রয়েছে। এখানে তুলে আনা লবণ ফিলিং করা হয়। ট্রাক থেকে লবণ লোড ও আনলোড হয়। ইন্দ্রপুল থেকে আবার সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠানোর জন্য ট্রাকে ট্রাকে কাঁচা লবণ আনলোড করা হয়। ইন্দ্রপুল থেকে চট্টগ্রাম শহরের দিকে যাওয়ার সময় আনোয়ারা ক্রসিং পর্যন্ত স্থানটুকু জুড়ে এসব লবণ ট্রাক থেকে ঘেমে ঘেমে কাঁচা লবণপানি পড়তে থাকে। পটিয়ার ইন্দ্রপুল থেকে আনোয়ারা ক্রসিং পর্যন্ত প্রায় ছয় কিলোমিটার সড়কের ইন্দ্রপুল ব্রিজ এলাকা, শান্তিরহাট, মনশা চৌমুহনী, মনসা বাদামতল, বেল্লাপাড়া, আনজুরহাট, কাজীপাড়া এলাকার সড়কে লবণপানির কারণে সবচেয়ে বেশি দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন যানবাহন চালক ও যাত্রীরা। পুলিশ ট্রাকচালকদের নিয়ন্ত্রণে মামলা দিলেও কাজ হচ্ছে না। লবণপানিতে সড়কের অবস্থা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠলে পুলিশই ফায়ার সার্ভিস দিয়ে সড়ক পরিস্কার করছে । সুত্র, সমকাল

পাঠকের মতামত

যেভাবে ভুয়া জন্মসনদ এনআইডি ও পাসপোর্ট পাচ্ছে রোহিঙ্গা ও দাগি আসামিরা

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জের সাদিয়া সুলতানা সাথি। পেশায় গৃহিণী। বিদেশ যাওয়ার কোনো স্বপ্ন নেই। নেই পাসপোর্টও। গৃহিণী ...

রাঙ্গামাটিতে স্পিডবোটে সন্তান প্রসব, ১০ হাজার টাকা পুরস্কার ও আজীবন যাতায়াত ফ্রি

গত রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারী) কাপ্তাই হ্রদে স্পিডবোটে এক শিশুর জন্ম হয়েছে। এঘটনায় ওই মা-শিশুর আজীবন ...