উখিয়া নিউজ ডেস্ক
প্রকাশিত: ২৪/০২/২০২৩ ৯:৫২ পিএম
ছবি/ প্রতীকী

কক্সবাজার সদরে জামাতার ছুরিকাঘাতে শ্বশুর নিহত হয়েছেন। এসময় তার স্ত্রীও আহত হয়েছেন।

শুক্রবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুর ১টায় সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের দক্ষিণ জানারঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত জামাতা হাকিম উল্লাহকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহতের নাম আজিজুল হক। তার বাড়ি জানারঘোনা এলাকায়। আহত সোনিয়া আক্তার তার মেয়ে।

কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রফিকুল ইসলাম হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয়দের বরাতে ওসি বলেন, হাকিম উল্লাহ তার শ্বশুর আজিজুল হকের জায়গায় অস্থায়ী ঘর তৈরি করে বসবাস করে আসছেন। কিছুদিন আগে স্ত্রী জমজ সন্তানের জন্ম দেন। জন্মের তিন দিন পর এক সন্তান মারা যায়। আজ সকালে অন্য সন্তানটিও মারা যায়। দুপুরে নাতির মৃত্যুর খরব শুনে দেখতে যান আজিজুল হক। এ সময় জায়গা নিয়ে কলহের জেরে শ্বশুর-জামাতার তর্কাতর্কি হয়। এক পর্যায়ে জামাতা হাকিম উল্লাহ শ্বশুরকে ছুরিকাঘাত করে। এতে বাধা দিতে গেলে স্ত্রী সোনিয়া আক্তারকেও মারধর করে।

ওসি বলেন, স্থানীয়রা আহত আজিজুল হক ও সোনিয়া আক্তারকে উদ্ধার করে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আজিজুল হককে মৃত ঘোষণা করেন।

দক্ষিণ জানারঘোনা এলাকার সমাজপতি (সর্দার) আব্দুর রহমান বাবু বলেন, হাকিম উল্লাহ শ্বশুরের মালিকানাধীন জায়গায় ঘর তৈরি করে থাকতেন। শ্বশুর জায়গা ছেড়ে দেওয়ার কথা জানালে জামাতার সঙ্গে বিরোধের সৃষ্টি হয়। এর জেরেই খুনের ঘটনা ঘটেছে।

ওসি মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে হাকিম উল্লাহকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

পাঠকের মতামত

সীমান্তে কঠোর নজরদারি, এতো তেল মিয়ানমারে যাচ্ছে কীভাবে?

মিয়ানমারে সংঘাতময় পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ থেকে আশঙ্কাজনক হারে পাচার হচ্ছে জ্বালানি তেলসহ প্রয়োজনীয় খাদ্যপণ্য। তবে সীমান্ত ...