রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের এসিড নিক্ষেপে হাসপাতালে কাতরাচ্ছে রোহিঙ্গা যুবতী

কায়সার হামিদ মানিক,উখিয়া::
কক্সবাজারের উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্পে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হামলা ও এসিড নিক্ষেপে গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে কাতরাচ্ছে রোহিঙ্গা এক যুবতী।

রবিবার (৩১ মে) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে উখিয়ার কুতুপালং নিবন্ধিত ক্যাম্পের জি-ব্লক,১৭ শেড এ এই ঘটনা ঘটে। আহত যুবতী জি-ব্লক,১৭ শেড এর হোসাইন আহমদের মেয়ে ছেনুয়ারা বেগম (২১)।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,ছেনুয়ারা বেগম সুকাতে দেওয়া কাপড় নিতে বের হলে আগে থেকে উৎপেতে থাকা কিছু রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী দা নিয়ে মাথায় কোপ দিয়ে রক্তাক্ত করে।পরে রোহিঙ্গা যুবতীকে জোর পূর্বক এসিড নিক্ষেপ ও মুখে এসিড ঢেলে হত্যার চেষ্টা চালায়।

স্থানীয় রোহিঙ্গারা এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।এ সময় খবর পেয়ে আহত রোহিঙ্গা যুবতীর ভাই আয়ুবসহ অন্যান্য রোহিঙ্গারা ছেনুয়ারা বেগমকে উদ্ধার করে উখিয়া হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার করেন।

আহত ছেনুয়ারা বেগমের ভাই আইয়ুব সাংবাদিকদের জানান,রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী জি-ব্লকের শেড- ১৮ এর মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে আব্দুল কুদ্দুস(৪২),একই ব্লক ও শেডের ছুরা খাতুন(২৬)ফাতেমা খাতুন(৫০) ও জি- ব্লকের শেড-২০ এর কাইয়াছ(৩৬)ছেনুয়ারা বেগম(২৮)এবং জি- ব্লকের শেড-৪৫ এর মুছা তয়ুব(৩২)ও তার স্ত্রী সাবেকুন নাহার (২৮)সহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজন আমার বোনকে হামলা ও এসিড নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়।

আইয়ুব আরো জানান,বর্তমানে আমার বোনের অবস্থা গুরুতর হওয়ায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।পাশাপাশি হামলা ও এসিড নিক্ষেপের ঘটনায় রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন