হঠাৎ বিদ্ধাশ্রমে পূর্ণিমা!

বিনোদন ডেস্ক::
ছেলে আমার মস্ত মানুষ, মস্ত অফিসার, মস্ত ফ্ল্যাটে যায় না দেখা এপার ওপার। নানান রকম জিনিস আর আসবাব দামী দামী, সবচেয়ে কম দামী ছিলাম একমাত্র আমি। ছেলের আমার আমার প্রতি অগাধ সম্ভ্রম আমার ঠিকানা তাই বৃদ্ধাশ্রম। নচিকেতার বৃদ্ধাশ্রম গানটির মতোই বর্তমান সময়ের অনেকটা সাদৃশ্য খুঁজে পাওয়া যায়। নিজের সন্তানদের পরিবারে শেষ বয়সে ঠাঁই না পেয়ে অনেক বৃদ্ধ লোকের শেষ ঠিকানা হয় বিদ্ধাশ্রমে।
গতকাল শুক্রবার (২৪ মে) রাজধানীর উত্তরার উত্তরখানে এমনই একটি বৃদ্ধাআশ্রমে গিয়েছিলেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা। বৃদ্ধাআশ্রমটির নাম ‘আপন নিবাস বৃদ্ধাআশ্র’। পূর্ণিমা সেখানে থাকা বৃদ্ধাদের জন্য নিজের হাতে রান্না করে নিয়ে গেছেন। বৃদ্ধাআশ্রমটিতে থাকা বৃদ্ধাদের সঙ্গে দারুণ কিছু সময় কাটিয়ে তাদের জন্য খাবার পরিবেশন করেন তিনি।
বৃদ্ধাশ্রমে থাকা মায়ের সঙ্গে সময় কাটানোর বেশ কয়েকটি স্থিরচিত্র আজ শনিবার (২৫ মে)নিজের ফেসবুক পোস্ট করেছেন নায়িকা। সে ছবিতে বৃদ্ধাশ্রমে বৃদ্ধাদের সঙ্গে হাস্যোজ্জল পূর্ণিমাকে দেখা যাচ্ছে। তাকে পেয়ে অসহায় মায়েরাও খুশিতে আত্মহারা। খানিক সময়ের জন্য যেন নিজের সন্তানকেই কাছে পেয়েছেন তারা।

জানা গেছ ‘আপন নিবাস বৃদ্ধাআশ্রম’ এ প্রায় ৫০ জন নারী বসবাস করছেন। তাদের কারও কারও শারীরিক সামর্থ্য নেই। আশ্রমই তাদের ভরসা।
এ বিষয়ে পূর্ণিমা বলেন, ‘বিষয়টি খুব আনন্দের ও আর তৃপ্তিদায়ক। এ আনন্দ ভাষায় প্রকাশ করতে পারছি না। তাদের সঙ্গে সময়টা কাটিয়ে এবং একবেলা খাওয়াতে পেরে আমার নিজের মনের মধ্যে একটা শান্তি অনুভব করছি। এটা একটা সামাজিক দায়বদ্ধতা। এভাবে অসহায় বৃদ্ধাদের সময় দেয়া উচিত বলে মনে করি।’
নায়িকা আরো বলেন, ‘কিছু যুবতি রয়েছে, রয়েছে কিছু প্রতিবন্ধীও যারা চোখে দেখতে পায়না। আমার কাছে এটা ভালো লেগেছে যে তারা একটি নির্ভরযোগ্য স্থানে আছে যেখানে তারা সঠিক যত্নটা পাচ্ছে।’
এদিকে, পাঁচ বছর পর চলচ্চিত্রে ফিরছেন পূর্ণিমা। এক সঙ্গে ‘জ্যাম’ এবং ‘গাঙচিল’ নামের দুইটি সিনেমায় কাজ করছেন। দুটি সিনেমাই পরিচালনা করছেন নঈম ইমতিয়াজ নেয়ামুম। ‘জ্যাম’ সিনেমায় পূর্ণিমার বিপরীতে অভিনয় করছেন আরিফিন শুভ। ‘গাঙচিল’-এ পূর্ণিমার সঙ্গে দেখা যাবে ফেরদৌসকে। রোজার কারণে ছবি দুটির শুটিং বন্ধ রয়েছে। ঈদের পর আবারো ছবি দুটির শুটিংয়ে অংশ নেবেন পূর্ণিমা।

ad