কক্সবাজারে বাসের ধাক্কায় জীপগাড়ী খাদে : নারীসহ নিহত-২

এম.মনছুর আলম,চকরিয়া
চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে চকরিয়ায় যাত্রাবাহী বাসগাড়ির ধাক্কায় জীপগাড়ী খাদে পড়ে দুইজন নিহত হয়েছে। এসময় আরো ৫ যাত্রী আহত হয়েছে। তৎমধ্যে দু’জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ঘটনাস্থল থেকে হতাহতদের উদ্ধার করছে হাইওয়ে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২২জুলাই) দুপুর দেড়টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ছড়ারকুল ঝনঝইন্যা সেতু এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সড়ক দূর্ঘটনায় নিহতরা হলেন- চকরিয়া উপজেলা কৈয়ারবিল স্টেশন এলাকার আবু সৈয়দের স্ত্রী সুফিয়া বেগম (৩১) ও পার্বত্য বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার সিরাজ কারবারিপাড়া এলাকার তালেব আলীর ছেলে আলী হোসেন (১৩)। সে জীপ গাড়ীর হেলপার ছিলেন।

আহত ব্যক্তিরা হলেন চট্টগ্রাম জেলার বাসিন্দা মো. মুবিন (৪০), নাঈম (১৪), কবির আহমদ (২৮), মোহাম্মদ ফারুক (১৮) ও নিহত সুফিয়া বেগমের কন্যা শিশু আদিফা মনি (৩)। আহত ব্যক্তিদের উদ্ধার করে প্রথমে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। তাঁদের মধ্যে মুবিন ও নাঈম-এর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় দুইজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) প্রেরণ করা হয়েছে। হতাহতরা সবাই জীপ গাড়ীর যাত্রী ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে কক্সবাজার থেকে যাত্রীবাহি একটি বাস চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। অপরদিকে চকরিয়া পৌরশহর থেকে আলীকদমের উদ্দেশ্যে দুপুরে দেড়টার দিকে একটি জীপগাড়ি (চাঁন্দের গাড়ি) ছেড়ে ফাঁসিয়াখালীস্থ ছড়ারকুল ঝনঝইন্যা সেতু এলাকায় পৌঁছালে বাসের ধাক্কায় সড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে জীপগাড়ি দুমড়েমুচড়ে যায়। এ সময় দুর্ঘটনায় দুই ব্যক্তি নিহত ও পাঁচজন কমবেশী গুরুতর আহত হয়েছে।
ঘটনাস্থল থেকে চাঁন্দেরগাড়ীর হেলপার শিশুর লাশ উদ্ধার করে মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ। অপর নারী পৌরশহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। ঘটনাস্থল থেকে স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। তাঁদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (চমেক) পাঠানো হয়েছে।

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. শাহ ফাহিম আহমাদ ফয়সাল বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত চারজনের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের চমেক প্রেরণ করা হয়েছে। অন্য দুজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা ও ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

মহাসড়কের মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) টিপু রায় বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে জীপগাড়ীর হেলপারের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাঁর স্বজনরা লাশ নেওয়ার জন্য আবেদন করেছে। দুর্ঘটনা কবলিত বাস, জীপগাড়ি ও ইজিবাইক জব্দ করা হয়েছে। ওই গাড়ীর চালকরা পলাতক রয়েছে। এ ঘটনায় দুর্ঘটনা আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন