প্রকাশিত: ২৮/০৬/২০২২ ১১:১৬ এএম

বড় স্বপ্ন দেখতে ভয় না পাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (ডুয়েট) সাবেক ছাত্র আবদুল্লাহ আল মামুন।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের মূল প্রতিষ্ঠান মেটায় সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে যোগ দিয়েছেন ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (ডুয়েট) থেকে কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতক ডিগ্রি সম্পন্ন করা আবদুল্লাহ আল মামুন।

জুন মাসের শুরুর দিকে তিনি এ চাকরিতে যোগ দেন।

এক ফেসবুক পোস্টে তিনি বিশ্বের অন্যতম বিখ্যাত প্রযুক্তি কোম্পানিতে চাকরি পাওয়ার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছেন।

এই চাকরি পেতে প্রথম দিকে কিছুটা প্রতিকূল পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে উল্লেখ করে মামুন এ যাত্রাটিকে তার জীবনের সবচেয়ে কঠিন অভিজ্ঞতা বলে অভিহিত করেছেন।

তিনি জানান, প্রকৌশলী হওয়ার স্বপ্ন থেকে দেশের স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) ভর্তির ইচ্ছে ছিল তার। তবে সেখানে ভর্তির সুযোগ না পেয়েও দমে যাননি মামুন।

“প্রকৌশলী হওয়ার স্বপ্ন” বাঁচিয়ে রাখতে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে ভর্তি হন তিনি। এরপর ভর্তি হন ডুয়েটে।

এর মধ্যেই তিনি বৃত্তি নিয়ে উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে যাওয়ার চেষ্টা করতে থাকেন। জার্মানিতে একটি স্কলারশিপের সুযোগ পেয়েও যান মামুন।তবে আর্থিক সংকটের কারণে যেতে পারেননি।

উখিয়া নিউজ ডটকমের   সর্বশেষ খবর পেতে Google News অনুসরণ করুন

ডুয়েট থেকে স্নাতক শেষ করার পর তিনি কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে স্নাতকোত্তর করার জন্য সৌদি আরবের কিং ফাহদ ইউনিভার্সিটি অব পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড মিনারেলে স্কলারশিপ পান।

এরপর তিনি ফ্লোরিডা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে কম্পিউটার সায়েন্সে পিএইচডি করেন।

এর মধ্যেই তিনি ফেসবুক এবং গুগলের মতো টেক জায়ান্টগুলোতে ইঞ্জিনিয়ারিং পদের জন্য আবেদন করতে থাকেন।

রকু, ফেডেক্স, লিংকডইন, টেলসা, উবারসহ বিভিন্ন টেক জায়ান্টে চাকরির ইন্টারভিউও দেন তিনি। তবে এসব সংস্থায় চাকরির মেলেনি তার।

অবশেষে, সাত ধাপের বাছাই প্রক্রিয়ার পর টেক জায়ান্ট মেটা তাকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মেনলো পার্কে অবস্থিত তাদের হেড অফিসে ই-ফোর সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে যোগদানের প্রস্তাব দেয়।

নিজের প্রতিকূল সময়ে অবিরাম সমর্থন এবং অনুপ্রেরণার জন্য মামুন তার বাবা, মা এবং স্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান।

ফেসবুক পোস্টে তিনি বড় স্বপ্ন দেখতে ভয় না পাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন সকলের প্রতি। তিনি সবাইকে চেষ্টা চালিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি অন্যের সঙ্গে নিজেকে তুলনা না করার আহ্বান জানান।

মামুনের মতে, বড় কিছু অর্জন করতে ব্যর্থতা হজম করার শক্তি থাকতে হয়। যখন আপনার পালা আসবে তখন কেউ আপনাকে আটকাতে পারবে না।

পাঠকের মতামত

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী পোস্টে ‘লাইক’ দিলেও ১০ বছরের জেল!

মিয়ানমারে সামরিক বাহিনী শাসিত সরকারের বিরোধিতা কিংবা প্রতিরোধ গোষ্ঠীগুলোর প্রতি সমর্থন জানিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যেকোনো ...