প্রকাশিত: ২২/০৮/২০১৬ ৮:০৭ এএম

এ,ম,এস রানা::
লোকে বলে অতি লোভে তাতি নষ্টা লোভ করলে ঠকতে হয় এ কথা আবার প্রমান করলো উখিয়ার এক যুবতী, দুই লক্ষ টাকার লোভে হারালেন সাড়ে ৩৪ হাজার টাকা এদিকে মাথায হাত বিকাশ দোকান ব্যবসায়ীর । এই মহা প্রতারনার ঘটনা টি ঘটেছে উখিয়া কোটবাজারে।
উখিয়া রত্না পালং রুহুল্লা ডেবা গ্রামের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ঐ যুবতী বলেন গতকাল বিকালে ০১৮৮২১৬৬৩৪২ নং থেকে রবি অফিসের বরাত দিয়ে জানানো হয় সারা দেশে কোম্পানী ১০ জন গ্রাহক কে পুরুস্কার হিসেবে দেড় লক্ষ টাকা দেবে তার মধ্যে তিনি একজন। ঐ টাকা পেতে হলে আগে তাদের কে ৩৫ হাজার টাকা দিতে হবে। অল্প টাকার বিনিময়ে অধিক টাকার লোভে পড়ে বিকাল সাড়ে চার টার সময় ছুটে যান পুর্বপরিচিত কোটবাজার এন আলম মার্কেটের রাকিব ইন্টারপ্রাইজে এখান থেকে ৩ ধাপে ৩৪ হাজার ৫০০ শত টাকা পাঠানোর পর ০১৮৭৯১৮৮৮৬৩ থেকে প্রতারক চক্র ফোন করে বলে আপনার টাকা পেযেছি, কোম্পানী এই মাত্র সিদ্বান্ত নিযেছে আপনাকে পুরো দুই লক্ষ টাকা দেওয়া হবে তার জন্য আপনাকে আরো ২৫ হাজার সহ মোট ৬০ হাজার টাকা দিতে হবে। ঐ যুবতী দোকান দারকে আরো টাকা দিতে বললে তার সন্দেহ হলে বিকাশ করা টাকা দাবী করে বলেন বিকাশ দেওয়া টাকা পরিশোধ করলে পরবর্তি টাকা দেওয়া হবে। এদিকে যুবতী আত্নবিশ্বাস তার কাছে টাকা আসবে সেখান থেকে টাকা পরিশোধ করা হবে, দির্ঘ সময় টাকা না পাঠালে প্রতারক চক্র বুঝতে পারে আর কাজ হবে না। যা হওয়ার তাই হলো মোবাইল বন্দ্ব, ঐযুবতীর বুঝতে আর বাকী রইলো না সে প্রতারনা শিকার হয়েছে।
ব্যবসায়ী তার টাকার পরিশোধের জন্য যুবতী কে দোকানে আটকে রেখে খবর দেওয়া হয় অভিভাবক কে অবশেষে তারা টাকা পরিশোধের মুচলেকা দিলে রাত ৮টায় ঐ যুবতী বাড়ি ফেরে।শুধু ঐ যুবতী নয, এ রকম প্রতারনা শিকার হচ্ছে হাজার হাজার মোবাইলসংশ্লিষ্ট কোম্পানী থেকে বার বার সথর্কতা অবলম্বন করার জন্য বলা হলেও প্রতারক চক্রে ফাঁদে পড়ে সর্বশ্য খুইয়ে চলেছে অনেক আনাড়ি গ্রাহকরা।

পাঠকের মতামত