প্রকাশিত: ২৮/০২/২০২২ ৭:২৪ এএম

কক্সবাজারে শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও ক্রিকেট কমপ্লেক্স আর থাকছে না। শিগগিরই নাম বদলে শেখ কামাল ইন্টারন্যাশনাল স্পোর্টস কমপ্লেক্স নাম হতে যাচ্ছে। যেখানে ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সঙ্গে নতুন করে যুক্ত হচ্ছে ফুটবল ও হকি স্টেডিয়াম।

স্টেডিয়াম পরিদর্শন করে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মেজবাহ উদ্দিন জানিয়েছেন, কক্সবাজারের ঐতিহ্য সাম্পানের আদলেই আন্তর্জাতিক স্পোর্টস কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে।
বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্রসৈকতের পাড়ঘেঁষে ২০১৩ সালে পর্যটন গলফ মাঠে নির্মাণকাজ শুরু হয় কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও ক্রিকেট কমপ্লেক্স। প্রায় ৪৯ একর জমিতে ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে স্টেডিয়ামটি নির্মাণ করে বিসিবি। যা ২০১৪ সালের ২৩ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উদ্বোধন করেন।
প্রাথমিকভাবে মাত্র ৭ হাজার ৮০০ দর্শক ধারণক্ষমতা সম্পূর্ণ ছিল স্টেডিয়ামটি। যেখানে অনুষ্ঠিত হয় অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ম্যাচ, নারীদের দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। এ ছাড়া চলে এনসিএল ও বিসিএলের ম্যাচ।

উখিয়া নিউজ ডটকমের   সর্বশেষ খবর পেতে Google News অনুসরণ করুন

কিন্তু বর্তমানে বেহাল দশা এই স্টেডিয়ামের। রয়েছে অবকাঠামোগত সমস্যাসহ মূল মাঠের পানি জমে থাকার সমস্যা। তবে স্টেডিয়ামটি নির্মাণের পর থেকে বিসিবি অনেক কর্তাব্যক্তি স্টেডিয়ামটি পূর্ণাঙ্গ করার প্রতিশ্রুতি দিলেও তা হয়নি।
পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা থাকা সত্ত্বেও দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও এখনো পূর্ণাঙ্গ হয়নি শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামটি। যার কারণে আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টের খেলা দেখতে বঞ্চিত হচ্ছে কক্সবাজারবাসী। তাই দ্রুত একটি পূর্ণাঙ্গ স্টেডিয়াম নির্মাণের দাবি জেলা ক্রীড়া সংস্থার।
এদিকে শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় স্টেডিয়াম পরিদর্শনে আসেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব মেজবাহ উদ্দিন। এ সময় তিনি জানান, কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামকে কক্সবাজারের ঐতিহ্য সাম্পানের আদলেই আন্তর্জাতিক স্পোর্টস কমপ্লেক্স নির্মাণ করা হবে।

পাঠকের মতামত

কক্সবাজারে কাসুন্দি রেস্তোরাঁর কাণ্ড—চাইলেন খাসির মাংস, খাওয়ালেন গরুর মাংস!

শনিবার রাত ৮ টা। সমুদ্র শহর কক্সবাজারের লাবনী পয়েন্টের হোটেল কল্লোলের নিচে কাসুন্দি রেস্তোরাঁয় ঢুকলেন ...