প্রকাশিত: ০৩/০৪/২০১৮ ৭:৩৯ এএম , আপডেট: ১৭/০৮/২০১৮ ৪:৪০ এএম

নিজস্ব প্রতিবেদক::

গ্যাস অনুসন্ধানের কাজের রাস্তা নির্মাণ করার জন্য কক্সবাজারের মহেশখালীর বনভূমির গাছ কাটার অনুমতি পেয়েছে পেট্রোবাংলা। তবে যে কয়টি গাছ কাটা হবে তার ৫ গুন গাছ ওই এলাকায় লাগাতে হবে প্রতিষ্ঠানটিকে।

আজ সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে তার কার্যালয়ে মন্ত্রিসভা বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এন এম জিয়াউল আলম জানান, কক্সবাজার জেলার মহেশখালী উপজেলায় পেট্রোবাংলার অনুকূলে ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া সংরক্ষিত বনভূমিতে বিদ্যমান বিভিন্ন প্রজাতির গাছপালা ও ঝোপজঙ্গল কর্তন ও অপসারণের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

তিনি বলেন, ওখানে পেট্রোবাংলার গ্যাস অনুসন্ধান ও রাস্তা নির্মাণের জন্য ১১ দশমিক ৬১৮ একর সংরক্ষিত ভূমি প্রয়োজন হবে। সেখানে বিদ্যমান বনভূমিতে ২৭৮টি এবং ঝোপজঙ্গল মিলে ৬২৪টিসহ মোট ৯০২টি বিভিন্ন প্রজাতির গাছ কাটতে হবে। গাছগুলোর পাঁচ গুণ বৃক্ষরোপণ এবং পাঁচ বছর পর্যন্ত এগুলো রক্ষণাবেক্ষণের শর্তে মন্ত্রিসভা প্রস্তাবটি অনুমোদন দিয়েছে।

এছাড়া চট্টগ্রামের বাঁশখালীতে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বে ‘বাংলাদেশ এনার্জি পোর্ট লিমিটেড’ নামে কোম্পানি গঠনের জন্য ‘মেমোরেন্ডাম অব অ্যাসেসিয়েশন’, ‘আর্টিক্যাল অব অ্যাসোসিয়েশন’ এবং ‘জয়েন্ট ভেনচার অ্যান্ড স্টেক হোল্ডারস এগ্রিমেন্ট’ এর খসড়া উপস্থাপন করা হলেও মন্ত্রিসভা তা অনুমোদন দেয়নি।

তবে আলোচনা শেষে এসডিজিবিষয়ক মুখ্য সমন্বয়ক মহোদয়কে আহ্বায়ক করে ১০ সদস্যের একটি কমিটি করা হয়েছে। কমিটি এ বিষয়টি বিস্তারিতভাবে দেখে পরবর্তী যে কোনো সভায় এ প্রস্তাব উপস্থাপন করবে।

পাঠকের মতামত

উখিয়ায় বৌদ্ধ আশ্রমে অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে শিশুকে নির্যাতনের অভিযোগ

কক্সবাজারের উখিয়ায় একটি বৌদ্ধ আশ্রমে শিশুকে অমানবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে সেখানকার অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগীর শিশুটির ...

বান্দরবানে কেএনএফের আস্তানায় যৌথ বাহিনীর অভিযান, নিহত ৩

বান্দরবানের রুমা উপজেলার রনিন পাড়ার কাছে ডেবাছড়া এলাকায় কেএনএফের একটি আস্তানায় সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে যৌথ বাহিনীর ...