কক্সবাজারে পিকনিক স্পট থেকে ৫ শিক্ষার্থী আটক!

কক্সবাজার শহরতলীর দরিয়ানগরে অবস্থিত বনবিভাগের কলাতলী পিকনিক স্পট থেকে অসংলগ্ন অবস্থায় স্কুল-কলেজ পড়ুয়া ৫ ছাত্রছাত্রীকে উদ্ধার করেছে প্রশাসন। গতকাল বুধবার দুপুর ১২টার দিকে রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমার নেতৃত্বে এ অভিযান চালানোকালে ইজারাদার ও তার লোকজন পালিয়ে যায়। অভিযানে আটককৃতদের মধ্যে রামু বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণীর ছাত্রীসহ অধিকাংশই বয়সে ‘নাবালক’ ছিল বলে জানান রামু উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রণয় চাকমা।
তিনি বলেন, ওটা আমার এলাকা নয়। কিন্তু রামুর শিক্ষক ও অভিভাবকদের কাছ থেকে অভিযোগ পেয়ে আমি তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়েছি। আমি দু:খিত এবং লজ্জিত যে, ওসব শিক্ষার্থীকে ‘খুব খারাপ’ অবস্থায় পেয়েছি। কিন্তু তারা বয়সে ‘নাবালক’ হওয়ায় ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে তাদের উত্তম মধ্যম দিয়েই ছেড়ে দিয়েছি।
তিনি জানান, উক্ত পর্যটনকেন্দ্রের কথিত বিশ্রাম কক্ষগুলো যেন সীলগালা করে দেয়া হয় এবং স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীকে যেন ওখানে ঢুকতে দেয়া না হয় কক্সবাজারের বিভাগীয় বনকর্মকর্তাকে সেই অনুরোধ করেছি।
এরআগে গত মাসের মাঝামাঝি সময়ে সদর থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে স্কুল- এবিষয়ে কক্সবাজার দক্ষিণ বনবিভাগের বিভাগীয় কর্মকর্তা মো. হুমায়ূন কবির বলেন, খবর পেয়ে ওই পিকনিক স্পটে অভিযান চালিয়ে বিশ্রামকক্ষগুলো সীলগালা করে দেয়া হয়েছে। এঘটনায় ইজারাদারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন