রোহিঙ্গার ছুরিকাঘাতে নিহত স্থানীয় যুবকের জানাযা সম্পন্ন

শফিক আজাদ::
রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে নিহত গ্রামবাসীর জাকের হোসেনের নামাজে জানাযা সোমবার সকাল ১১টায় উখিয়া উপজেলার পালংখালী ইউনিয়নের জামতলী নিজ গ্রামে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সে ওই এলাকার মৃত আবু আহম্মদের ছেলে। জানাযার পর থেকে জামতলী ক্যাম্প সংলগ্ন এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে বলে স্থানীয় লোকজন জানিয়েছেন।

নিহতের জানাযা শেষে স্থানীয় লোকজন প্রশাসনের প্রতি উদ্দ্যেশ্য করে বলেন, দ্রুত সময়ের মধ্যে জাকের হোসেনের মূল হত্যাকারী রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহন করা না হলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে।

থাইংখালী জামতলী স্থানীয় কমিউনিটির নেতা মোঃ সাইফুল জানায়, রোহিঙ্গা আশ্রয়ের কারনে স্থানীয় লোকজন অনেক ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে। বর্তমানেও অনেক ত্যাগ-শিকার করে যাচ্ছে। এরপরও সামান্য ইস্যু নিয়ে রোহিঙ্গারা স্খানীয় লোকজনের উপর ঝাপিয়ে পড়ে থাকে। জামতলী ক্যাম্পের অভ্যান্তরে ২৪৭টি স্থানীয় লোকজনের বাড়ি-ঘর রয়েছে। তারা আজ অনেকটা জিম্মি অবস্থায় রয়েছে। সে অভিযোগ করে বলেন, ক্যাম্প প্রশাসন অদৃশ্য কারনে স্থানীয়দের বিরুদ্ধে অবস্থান নেওয়ায় স্থানীয়রা খুবই অসহায়। ক্যাম্প প্রশাসনের অহেন মনোভাবের কারণে রোহিঙ্গাদের প্রতি স্থানীয়দের ক্ষোভ দিন দিন বাড়ছে বলে সে জানিয়েছেন।

উখিয়ার পালংখালী ইউপি চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরী জানান, শুক্রবার বিকেল ৪ টার দিকে জামতলী ক্যাম্পের রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা স্থানীয় আবু আহাম্মদের ছেলে জাকির হোসেন (৩৪)কে এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে। সে তার ঘর সংলগ্ন এলাকার ক্যাম্পের ভিতরে ছোট দোকান করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল। তার দোকান ও ঘরের চারদিকে রোহিঙ্গাদের ঝুপড়ি। রোহিঙ্গারা অনেকটা ইচ্ছে করে তার ঘর ও দোকানের আশপাশে ময়লা আবর্জনা ফেলে থাকে। এ নিয়ে প্রায় সময় রোহিঙ্গাদের সাথে জাকিরের কথা কাটাকাটি হতো। শুক্রবার (১০ জানুয়ারী) এধরনের ময়লা ফেলার ঘটনায় তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীরা সংঘবদ্ধ হয়ে জাকিরের ওপর হামলা চালায়। রোহিঙ্গারা এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত জখমী অবস্থায় তাকে ফেলে চলে যায়। কিছুক্ষণ পর খবর পেয়ে আত্মীয় স্বজনেরা এসে জাকিরকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতাল হয়ে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার, (১২ জানুয়ারী) দুপুর ১ টার দিকে মারা যায় বলে নিকটাত্মীয়রা জানান।

উখিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবুল মনসুর বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। আর পুলিশ অভিযান চালিয়ে সলিম উল্লাহ (৩০) নামের এক রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী আটক করেছে।

উল্লেখ্য যে, গত শুক্রবার বিকেলে উখিয়ার জামতলী -১৫ নং রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি- ব্লকে এ খুনের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় পুলিশ এক রোহিঙ্গাকে আটক করেছে। ঘটনার জের ধরে থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ করছে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন