বৃষ্টির জন্য কাবা শরিফ ও মদিনায় বিশেষ নামাজ আদায়

ডেস্ক রিপোর্ট::
সৌদি আরবের বাদশাহ খাদেমুল হারামাইন ওয়াশ শরিফাইন সালমান বিন আব্দুল আজিজ-এর রাজকীয় আহ্বানে গত বৃহস্পতিবার ভোরে পবিত্র কাবা শরিফ ও মদিনা শরিফের মসজিদে নববিতে যথাযোগ্য মর্যাদা ও ধর্মপ্রাণ মুসলমানের উপস্থিতিতে আদায় করা হয়েছে সালাতুল ইসতিসকা।

এর আগে গত মঙ্গলবার সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সুন্নতের অনুসরণে রহমতের বৃষ্টির জন্য ইসতিসকার নামাজ পড়তে দেশের সব নাগরিকের প্রতি জোর আহ্বান জানান।

পবিত্র কাবা শরিফে বৃষ্টির জন্য আদায় করা ইসতিসকার নামাজের খুতবা ও ইমামতির দায়িত্ব পালন করেন শায়খ ড. বানদারবিন আব্দুল আজিজ আল-বালিলাহ। যিনি গত ১৩ অক্টোবর পবিত্র কাবা শরিফের খতিব হিসেবে নিয়োগ পান।

শায়খ ড. বানদার বিন আব্দুল আজিজ আল-বালিলাহ নামাজের প্রথম রাকাআতে সুরা আলা এবং দ্বিতীয় রাকাআতে সুরা গাশিয়াহ তেলাওয়াত করেন।

কাবা শরিফের ইসতিসকার নামাজের জামাআতে পবিত্র নগরী মক্কার গভর্নর প্রিন্স খালেদ আল-ফয়সালসহ সরকারি উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
অন্য দিকে পবিত্র নগরী মদিনার মসজিদে নববিতে ইসতিসকা নামাজের খুতবা ও ইমামের দায়িত্ব পালন করেন শায়খ ড. আহমদ তালিব হামেদ। তিনিও গত ১৩ অক্টোবর রাজকীয় ফরমানের মাধ্যমে মদিনা শরিফের খতিবের দায়িত্ব লাভ করেন।

শায়খ ড. আহমদ তালিব হামেদও নামাজের প্রথম রাকাআতে সুরা আলা এবং দ্বিতীয় রাকাআতে সুরা গাশিয়াহ তেলাওয়াত করেন।

ইসতিসকা নামাজে সরকারের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের পাশাপাশি মসজিদে হারারেমর প্রধান খতিব শায়খ ড. আব্দুর রহমান আস-সুদাইসসহ মসজিদে হারামের অন্য ইমামরাও উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, সৌদি আরবে রহমতের বৃষ্টির জন্য প্রতি বছরই একাধিকবার ইসতিসকা নামাজ পড়া হয়। বিশেষ করে যখনই অনাবৃষ্টি তথা খড়ার প্রকোপ বেড়ে যায় তখনই ইসতিসকার নামাজ পড়া হয়। আর এমনটি করা প্রিয় নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের অন্যতম সুন্নাত।

একনিষ্ঠ তাওবা করার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে রহমতের বৃষ্টি কামনা করে অতিরিক্ত ১২ তাকবিরের মাধ্যমে ২ রাকাআত নফল নামাজ আদায় করার মাধ্যমে আল্লাহর কাছে পানি প্রার্থনা করাই হলো সালাতুল ইসতিসকা। এ নামাজ কোনো আজান ও ইকামত ছাড়া জামাআতের সঙ্গে পড়তে হয়।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন