হিমছড়িতে গাড়ি পার্কিংয়ের নামে চাঁদাবাজদের ধরতে প্রশাসনের অভিযান

বাজার ইজারা নিয়ে প্রশাসনের অনুমতি ছাড়া হিমছড়ি পর্যটন কেন্দ্রে গাড়ি পার্কিংয়ের নামে চাঁদাবাজদের ধরতে প্রশাসন অভিযান চালিয়েছে। তবে ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ি দেখে পালিয়ে যায় পার্কিংয়ের নামে টাকা উত্তোলনকারীরা। গতকাল ১৬ সেপ্টেম্বর বিকালে হিমছড়ি গাড়ি পাকিংয়ের নামে টাকা আদায়কারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযানে যান কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান জাহেদ খান। তিনি জানান, জেলা প্রশাসক মহোদয়ের নির্দেশে হিমছড়ি পর্যটন কেন্দ্রে গাড়ি পার্কিংয়ের নামে টাকা আদায়কারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে গেলেও কাউকে পাওয়া যায়নি। এ সময় আমরা নিয়ম অনুযায়ী একবার সতর্ক করেছি এর পরে কেউ পর্যটক বা সাধারণ মানুষ থেকে পার্কিংয়ের নামে টাকা আদায় করলে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছি। এছাড়া তাদের কি কাগজপত্র আছে সেটা দেখাতে বলেছি। এদিকে হিমছড়ি এলাকার বেশ কয়েকজন ব্যবসায়ি এবং পর্যটক অভিযোগ করেন রামু উপজেলা থেকে জনৈক জসিম নামেরএকজন হিমছড়ি বাজার ইজারা নিয়েছে বর্তমান ইজারাদার বাজারে ব্যবসায়িদেরও নানান ভাবে হয়রানী এবং চাপ দিয়ে বিপুল টাকা আদায় করার পাশাপাশি সম্পূর্ণ বেইনীভাবে এখানে আসা যাবতীয় গাড়ি থেকে পার্কিং ফি আদায় করে আসছিল। গত ৬ সেপ্টেম্বর স্থানীয় পত্রিকায় এ বিষয়ে সংবাদ প্রকাশিত হলে কয়েকদিন চাঁদা আদায় বন্ধ রেখেছিল তবে ২ দিন আগে থেকে আবার আগের নিয়মে গাড়ি পার্কিংয়ের নামে চাঁদা আদায় করে আসছে। তবে ১৬ সেপ্টেম্বর বিকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অভিযান চালাতে আসলে সবাই পালিয়ে যায়। ব্যবসায়িদের দাবী পার্কিংয়ের জন্য কোন ফি না থাকলেও পর্যটকদের কাছ থেকে জোরপূর্বক পার্কিং ফির নামে প্রতিদিন হাজার হাজার টাকা আদায় করে আসছিল তারা। এতে পর্যটকরা হিমছড়িতে দাড়াতে চায়তো না ফলে আমাদের ব্যবসা বাণিজ্য হচ্ছিলনা। তাই এ বিষয়ে প্রশাসনকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার আহবান জানান ব্যবসায়িরা।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন