৮ নভেম্বর মিয়ানমারের সাধারণ নির্বাচন

আগামী ৮ নভেম্বর মিয়ানমারে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এই নির্বাচনকে অং সান সু চির নেতৃত্বে দেশের প্রথম গণতান্ত্রিক সরকারের জন্য একটি পরীক্ষা হিসেবে দেখা হচ্ছে।
বুধবার দেশটির নির্বাচন কমিশন এক ঘোষণায় এ তথ্য জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে ইউনিয়ন নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান হ্লা থেইন বলেন, পার্লামেন্টের জন্য ওইদিন একটি বহুদলীয় সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

দ্য মিয়ানমার টাইমস জানিয়েছে, আসন্ন নির্বাচনে মোট ১ হাজার ১৭১টি জাতীয়, রাজ্য ও আঞ্চলিক আসনে লড়াই হবে। দেশটির সব শহরেই ভোটগ্রহণ করা হবে। এমনকি সংঘাতপূর্ণ অঞ্চলেও ভোট নেয়া হবে বলে জানা গেছে।।

আসন্ন এই নির্বাচনকে মিয়ানমারের সরাসরি সামরিক শাসন থেকে বেরিয়ে এসে গণতন্ত্র সংস্কারের পথে গুরুত্বপূর্ণ একটি পরীক্ষা হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা।

এর আগে, ২০১৫ সালে মিয়ানমারে প্রায় এক দশকের সামরিক শাসনের ইতি টেনে গণতন্ত্রের হাল ধরেন শান্তিতে নোবেলজয়ী অং সান সু চি। তবে এরপর ২০১৭ সালে দেশটির সেনাবাহিনীর অত্যাচারে লাখ লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে যাওয়ার পর আন্তর্জাতিকভাবে চাপে পড়েন তিনি।

নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগে অবস্থিত আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে ধর্ষণ, অগ্নিসংযোগ ও গণহত্যায় অভিযুক্ত নিজ দেশের সেনাবাহিনীর পক্ষে কথা বলেন তিনি।

মিয়ানমারে এখনো সমান জনপ্রিয় সু চি। তার সরকার আকাশচুম্বী প্রত্যাশা পূরণ করতে পারেনি। তবে সংখ্যালঘুদের পক্ষে কাজ না করায় তিনি কিছু আসন হারাতে পারেন বলে আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা।

সূত্র- আল জাজিরা

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন