ইয়াবা কারবারে সংশ্লিষ্ট ২৫ কথিত বিশিষ্টজনকে আইনের আওতায় আনা হচ্ছে : এসপি মাসুদ

মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :
ইয়াবা কারবারের সরাসরি সম্পৃক্ত কক্সবাজারের কথিত ২৫ বিশিষ্টজনের তালিকা চুড়ান্ত করা হয়েছে। তালিকাটি নিখুঁতভাবে তথ্য যাচাই-বাছাই করে পর্যাপ্ত সময় নিয়ে তারা ইয়াবা কারবারে জড়িত থাকার বিষয়ে সুনিশ্চিত হয়ে তৈরী করেছি। তালিকায় অন্তর্ভুক্ত ২৫ জন তথাকথিত মুখোশধারী বিশিষ্টজনের ইয়াবা কারবারে জড়িত থাকার ব্যাপারে প্রামাণ্য ডকুমেন্টসও রয়েছে। এই তালিকাটি অচিরেই জেলা প্রশাসনের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তারা এখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর নজরদারিতে রয়েছে। এই ২৫ জন জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতা, গণমাধ্যম কর্মী, ব্যবসায়ী যে পর্যায়ের ব্যাক্তি কিংবা নেতা হোক না কেন, তাদেরকে শিঘ্রী কঠোর আইনের আওতায় আনা হবে। কাউকে বিন্দু পরিমাণ ছাড় দেয়া হবনা। রোববার ১৪ জুলাই কক্সবাজারে ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোঃ আশরাফুল আফসার (উপসচিব) এর সভাপতিত্বে কক্সবাজার জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভায় কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন-বিপিএম এ কথা বলেন। জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের শহীদ জাফর আলম-সিএসপি সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত সভায় এসপি এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম আরো বলেন, চুরি আর ডাকাতির সংজ্ঞা এক নয়। কক্সবাজার জেলায় ছোট-খাট চুরি হলেও গত ৬ মাসে ইনশাল্লাহ কোন ডাকাতি সংঘটিত হয়নি। শহরের কবিতা চত্বরে নিয়মিত পুলিশ টহল দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তাই সেখানে আর কোন অসামাজিক ও অপরাধকর্ম সংঘটিত হবেনা বলে এসপি এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম সভায় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। সভায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও এডিসি (সার্বিক) মোহাঃ শাজাহান আলি সহ প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন