স্বামী-স্ত্রীর সম্পর্কে ভাঙন ধরাতে পারে সোশ্যাল মিডিয়া!

বিয়ের সম্পর্ক খুব জটিল একটি রসায়ন। বিয়ের পরই দুটি মানুষ একসঙ্গে সমাজিকভাবে পাশাপাশি থাকার ছাড়পত্র পান। বিয়ের পর শুরু হয় এক অন্য জীবন। এই সম্পর্ককে ঠিক মতো এগিয়ে নিয়ে যেতে চাইলে হতে হবে সবাধান। এক্ষেত্রে সোশ্যাল মিডিয়ার জন্যও দেখা দিতে পারে সমস্যা।

কারণ বিয়ের পর বহু মানুষ কেবল সোশ্যাল মিডিয়া নির্ভর হয়ে পড়েন। তাদের জীবনের যাবতীয় কিছুতে লেগে থাকে সোশ্যাল মিডিয়া। পান থেকে চুন খসলেও তারা আপডেট দেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে বিয়ের পর এই অভ্যাস থাকলে কিন্তু দেখা দিতে পারে সমস্যা। তাই এই কয়েকটি কাজের মাধ্যমেই সমস্যার সমাধান করুন।

> কিছুটা সময় সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটানো যেতেই পারে। তবে অনেকের অভ্যাস আছে সবসময় সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটোনোর। তারা ঘণ্টার পর ঘণ্টা সোশ্যাল মিডিয়ায় কাটিয়ে দিতে পারেন। করে চলেন ফেইসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম। তবে এই অভ্যাস আপনার সামনে থাকা সঙ্গীর ভালো না লাগাই স্বাভাবিক। কারণ আপনি তার সঙ্গে থাকা সত্ত্বেও সোশ্যাল মিডিয়ায় সময় কাটাচ্ছেন। তাই এই বিষয়টি নিয়ে সতর্ক থাকুন।

> অন্য সকলের পোস্টে আপনার লাইক রয়েছে। এমনকী কোনও কোনও ক্ষেত্রে করে ফেলছেন কমেন্টও। তাহলে সঙ্গীর পোস্ট বাদ যাবে কেন। তার পোস্টেও দিন লাইক, কমেন্ট।

> আপনার পোস্টে লাইক না পড়তেই পারে। তাই বলে, আপনার সঙ্গীর পোস্টে লাইক, কমেন্ট দেখে জ্বলবেন না। এর থেকে জন্ম নেওয়া হিংসার সঙ্গে লড়াই করা সহজ নয়।

> অনেকেই গোয়েন্দা হতে চান। তাই সঙ্গীর মোবাইলের নানা মেসেজ তারা ঘেটে থাকেন। যদিও এই অভ্য়াস বিরাট সমস্যা তৈরি করতে পারে। এমনকী দেখা দিতে পারে সম্পর্কে ফাটল। তাই এর থেকে দূরে রাখুন।

> সোশ্যাল মিডিয়ায় একার ছবি দিয়ে অনেক লাইক, কমেন্ট কুড়িয়েছেন। এবার সঙ্গীর সঙ্গে ফটো দিন। তবেই তিনি বুঝবেন যে আপনি তার খেয়াল রাখেন। তার কথা চিন্তা করেন। সেই মতো এখন থেকেই তৈরি হন।

সূত্র: এই সময়

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন