সৌদি নারীরা মোটরসাইকেল এবং ট্রাকও চালাতে পারবেন

তিন মাসে আগে সৌদি আরবের নারীদেরকে ব্যক্তিগত গাড়ি চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। এবার সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ বলছেন তাদের দেশের নারীরা মোটর সাইকেল এবং ট্রাকও চালাতে পারবেন।

গত সেপ্টেম্বরে রাজা সালমান একটি ফরমান জারি করে বলেছিলেন, ২০১৮ সালের জুন থেকে সৌদি আরবের নারীরা গাড়ি চালাতে পারবেন। চরম রক্ষণশীল রাজতান্ত্রিক রাষ্ট্র সৌদি আরবে চলমান এক উচ্চাভিলাষী সংস্কার পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই ওই ডিক্রি জারি করা হয়েছিল।

শুক্রবার সৌদি আরবের যানবাহন পরিচালনা মহাদপ্তর এই বিষয়ক নতুন আইন ও নিয়মকানুনের বিস্তারিত প্রকাশ করে রাষ্ট্রনিয়ন্ত্রিত সৌদি প্রেস এজেন্সিতে।

সেখানেই বলা হয়, নারীরা মোটরসাইকেল এবং ট্রাকও চালাতে পারবেন। আর গাড়ি চালনা সংক্রান্ত আইন নারী-পুরুষ উভয়ের জন্যই সমান থাকবে।

ad

নারী চালকদের গাড়ির জন্য আলাদা কোনো নাম্বার প্লেটও থাকবে না। তবে যে নারী চালকরা দুর্ঘটনায় জড়িত থাকবে বা ট্রাফিক আইন অমান্য করবে তাদের বিচার হবে একটি বিশেষ আদালতে। যা পরিচালিত হবে শুধু নারীদের দ্বারাই।

প্রসঙ্গত, সৌদি আরব ছিল বিশ্বের একমাত্র দেশ যেখানে নারীদের গাড়ি চালানো নিষেধ ছিল।

আগামী বছরের জুন থেকে এই নিষেধাজ্ঞা আর থাকছে না।
আর সৌদি আরব হল বিশ্বের একমাত্র দেশ যেখানে নারীদের পড়াশোনা, ভ্রমণ এবং ঘরের বাইরের যে কোনো কাজের জন্য বাবা, স্বামী বা ভাইয়ের অনুমতি লাগে।