সুষ্ঠু নির্বাচনের আশ্বাস দিলেন প্রধানমন্ত্রী

যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে সহিংসতামুক্ত সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ পরিবেশে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন আশা করে। জবাবে প্রধানমন্ত্রী সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ পরিবেশে নির্বাচনের আশ্বাস দিয়েছেন।

মঙ্গলবার বাংলাদেশে নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এসব কথা বলেন। সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে এ সাক্ষাৎ অনুষ্ঠিত হয়।

সাক্ষাতের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে বলেন, ‘বৈঠকে বিভিন্ন বিষয়ে বিশেষ করে বাংলাদেশের জ্বালানিখাতে দুই দেশের সহযোগিতার বিষয় আলোচনায় গুরুত্ব পায়।’

মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেন, জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৩তম অধিবেশনে যুক্তরাষ্ট্র প্রেসিডেন্সি পাবে এবং তখন রেহিঙ্গা শরণার্থীদেরকে মিয়ানমারে তাদের নিজ বাসভূমে প্রত্যাবাসনের বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে তোলা হবে।

বৈঠকে মার্শা বার্নিকাট বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহের কথা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে জানান।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার জ্বালানি খাত থেকে শুরু করে টিভি, মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন খাতকে বেসরকারি খাতে উন্মুক্ত করে দিয়েছে যাতে দেশে কর্মসংস্থান সৃষ্টি হয়। আলোচনাকালে মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশে সহিংসতামুক্ত সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ পরিবেশে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন আশা করে।

জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, আগামী সাধারণ নির্বাচন অবশ্যই সুষ্ঠু ও স্বচ্ছভাবে অনুষ্ঠিত হবে। কারণ তার সরকার সে লক্ষ্যে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে।

আগামী অক্টোবরে ঢাকা মিশন শেষ হচ্ছে প্রায় তিন বছর ধরে ঢাকায় থাকা জ্যেষ্ঠ কূটনীতিক মার্শা বার্নিকাটের। তবে সরকারপ্রধানের সঙ্গে এটি তার বিদায়ী সাক্ষাৎ নয়। বরং দুই দেশের স্বার্থ-সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জরুরি আলোচনা করতে বৈঠক করেন তিনি।