সীমান্তে সৈন্য বাড়িয়েছে মিয়ানমার; অসন্তুষ্ট বাংলাদেশ

ফাইল ছবি
সীমান্তে মিয়ানমারের সৈন্য বৃদ্ধির বিষয়ে দেশটির ব্যাখ্যায় সন্তুষ্ট নয় বাংলাদেশ। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে আর পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেছেন সীমান্তে সৈন্য বৃদ্ধির যে অজুহাত দিচ্ছে দেশটি তাতে সন্তুষ্ট নয় বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, নতুন করে সীমান্তে মিয়ানমারের সৈন্য সমাবেশের তথ্য মন্ত্রণালয় পেয়েছে। এক্ষেত্রে যেকোনো পরিস্থিতির জন্য সব সময় প্রস্তুত আছে বাংলাদেশ। এসময়, বিজিবি ও বিএসএফ বৈঠকে সীমান্ত হত্যাসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে অপর এক অনুষ্ঠানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম জানান, মিয়ানমার অভ্যান্তরীণ নিরাপত্তা বাড়ানোর যে অজুহাত দিচ্ছে তাতে সন্তুষ্ট নয় বাংলাদেশ। তিনি বলেন, এক রাষ্ট্র যদি সীমান্তে কোনো ব্যাখ্যা ছাড়া সেনা পরিসর বৃদ্ধি করে সেটি পাশ্ববর্তী রাষ্ট্রকে চিন্তিত করে। আমরা আমাদের অসন্তুষ্টির কথা মিয়ানমারকে জানিয়েছি।

বাংলাদেশে নতুন করে আর কোনো রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়া হবে না বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

সম্প্রতি বাংলাদেশ-মিয়ানমার আন্তর্জাতিক সীমান্তে মাছ ধরার ট্রলারে করে মিয়ানমারের সেনাদের সন্দেহজনক গতিবিধি লক্ষ করেছে বাংলাদেশ। সীমান্ত এলাকায় গত কয়েক দিনে মিয়ানমার সৈন্যদের উপস্থিতি দেখা গেছে। বিনা উসকানিতে সীমান্তের কাছে নতুন করে সেনাসমাবেশের বিষয়ে ঢাকায় মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূত অং কিউ মোয়েকে রোববার তলব করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের অগাস্টে নিপীড়নের অভিযোগ তুলে মিয়ানমার থেকে লাখ লাখ রোহিঙ্গা পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। তাদের এখনও ফিরিয়ে নেয়নি দেশটি।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন