সংখ্যার মালায় রোনালদো-নেইমার দ্বৈরথ

বুধবার রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শেষ ষোল’র প্রথম লেগে মুখোমুখি হচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদ ও পিএসজি। যে ম্যাচটার অন্য নাম হয়ে গেছে রোনালদো বনাম নেইমারের দ্বৈরথ। আজ মঙ্গলবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে জিনেদিন জিদান অবশ্য এই দাবিকে উড়িয়ে দিয়েছেন। তার কাছে রোনালদো-নেইমার দ্বৈরথ নয়, এটা রিয়াল বনাম পিএসজির লড়াই। তবে রিয়াল কোচ যতই দলীয় লড়াইয়ের জয়গান গান, ফুটবলপ্রেমীদের কাছে এটা কার্যত রোনালদো-নেইমারের দ্বৈরথই।

রোনালদো-নেইমার, দুজনেই নিজ নিজ দলের ‘মাঠের ‘নেতা’। নিজ নিজ দলের সমর্থকদের আগ্রহ-প্র্রত্যাশার কেন্দ্র বিন্দুতেও তারাই। তা দুজনের এই সম্মুখ যুদ্ধে জয়ী হবেন কে? এই প্রশ্নের উত্তর মিলবে বুধবার রাতে। তবে সান্তিয়ানো বার্নাব্যুর অগ্নি-পরীক্ষার আগে দর্শকদের কৌতুহল-প্রত্যাশার কথা মাথায় রেখে ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো ও নেইমারের দ্বৈরথকে সংখ্যার ভিত্তিতে ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছে স্প্যানিশ ক্রীড়া দৈনিক এএস।

অপটার পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে সংখ্যার মালায় গাথা দুজনের দ্বৈরথটা পরিবর্তন পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

২৮-গত আগস্টে বার্সেলোনা ছেড়ে পিএসজিতে যোগ দেওয়ার পর এ পর্যন্ত সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে ২৭টি ম্যাচ খেলেছেন নেইমার। তাতেই পিএসজির হয়ে ব্রাজিলিয়ান তারকা গোল করেছেন ২৮টি। ম্যাচপ্রতি এক গোলের বেশি। অন্যদিকে রিয়ালের হয়ে রোনালদো মৌসুমে সব মিলে ২৮ ম্যাচে করেছেন ২৩ গোল।

৯-এবারও উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে এখনো পর্যন্ত সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনালদোই। গ্রুপপর্বের ৬ ম্যাচেই গোল করার অনন্য রেকর্ড গড়া রিয়ালের পর্তুগিজ সুপারস্টার সর্বোচ্চ ৯ গোল। বিপরীতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ৬ ম্যাচে নেইমার করেছেন ৬ গোল।

৫-রোনালদো এবং নেইমার দুজনেই এ মৌসুমে নিজ নিজ দলের হয়ে পেনাল্টি থেকে গোল করেছেন সমান ৫টি করে।

১৮৮-মৌসুমে ২৩ গোল করতে রোনালদো গোলমুখ শট নিয়েছেন মোট ১৮৮টি। বিপরীতে নেইমার ২৮ গোল করার পথে গোলমুখে শট নিয়েছেন মাত্র ১২৬টি। মানে রোনালদোর চেয়েও ৬২ শট কম নিয়েও নেইমার গোল করেছেন ৫টি বেশি।

১৪-মৌসুমে নিজে ২৮ গোল করার পাশাপাশি নেইমার সতীর্থদের দিয়ে করিয়েছেন ১৪টি গোল। এখানে রোনালদো যোজন পিছিয়ে। রিয়াল তারকা সতীর্থদের দিয়ে গোল করিয়েছেন মাত্র ৫টি। শুধু তাই নয়, গোলের সুযোগ তৈরি করাতেও যোজন এগিয়ে নেইমার। তিনি গোলের সুযোগ তৈরি করেছেন ৮৯টি। সেখানে রোনালদো মাত্র ৩৫টি!

৩১৮-মৌসুমে এ পর্যন্ত ঘরে-বাইরে মিলিয়ে নেইমার পিএসজির হয়ে খেলা ২৭ ম্যাচে ড্রিবলিং করেছেন মোট ৩১৮টি। এর মধ্যে সফল ড্রিবলিং করেছেন ১৮৯টি। এখানেও রোনালদো অনেক অনেক পিছিয়ে। রিয়াল তারকা ২৮ ম্যাচে ড্রিবলিং করেছেন মাত্র ৫৯টি। তার মধ্যে সফল ড্রিবলিং মাত্র ৩৫টি।

উপরের এই তথ্য চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে, এই মুহূর্তে ব্যক্তিগত দ্বৈরথে যোজন যোজন এগিয়ে নেইমার। এখন দেখার বিষয়, বার্নাব্যুর সম্মুখযুদ্ধে কে জয়ী হন, নেইমার নাকি রোনালদো!