রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আসিয়ান আরও সম্পৃক্ত হবে: মারসুদিও

ঢাকা: মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর সংগঠন (আসিয়ান) আরও সম্পৃক্ত হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন, বাংলাদেশে সফররত ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেতনো এল. পি. মারসুদিও।

সোমবার (৪ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী। সাক্ষাৎ শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এসব তথ্য জানিয়েছেন।

ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, “রোহিঙ্গাদের জন্য নির্মীয়মান অবকাঠামো দেখতে আসিয়ানের দু’টি টিম মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য সফর করবে।”

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, “রোহিঙ্গাদের পাশাপাশি মিয়ানমার থেকে অন্য সম্প্রদায়ের লোকজনও বাংলাদেশে প্রবেশের চেষ্টা করছে। চীন, ভারত ও জাপান মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য বাড়ি-ঘর তৈরি করছে।”

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে ব্যাপক আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন ও নারী ক্ষমতায়নের ভূয়সী প্রশংসা করেন ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

বাংলাদেশে নারী ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “প্রশাসন, বিচার বিভাগ, শিক্ষা, ক্রীড়া এবং সেনাবাহিনী ও আইন-শৃংখলা বাহিনীগুলোসহ সব ক্ষেত্রে দেশের নারীরা বর্তমানে খুবই উচ্চ পদে রয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী ও ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী দু’জনেই দু’দেশের মধ্যে বিদ্যমান দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কে সন্তোষ প্রকাশ করেন। বৈঠকের শুরুতে রেতনো এল. পি. মারসুদিও চতুর্থবারের মতো বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করায় শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান ও ঢাকায় নিযুক্ত ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রদূত রিনা প্রিতিয়াসমিয়ারসি সোয়েমারনো এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ad