ad

রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব নিশ্চিত করতে চায় ইইউ : গিলমোর

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) মানবাধিকারবিষয়ক বিশেষ প্রতিনিধি অ্যামন গিলমোর বলেছেন, তিনি আজ বুধবার মিয়ানমার সফরে যাবেন। এ সফরে রোহিঙ্গা ইস্যুতে মিয়ানমারের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করবেন। এতে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের মূল পরিচয় ও নাগরিকত্ব নিশ্চিত করার বিষয়টি গুরুত্বসহকারে তুলে ধরা হবে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কক্সবাজার শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ আবুল কালামের সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষেসাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি। এদিকে বাংলাদেশে নিযুক্ত চীনের রাষ্ট্রদূত ঝ্যাং জু বলেছেন, রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনে তার দেশ ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে। গতকাল সাক্ষাতে তিনি এ কথা বলেন বলে জানিয়েছেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার।

ইইউ প্রতিনিধি গিলমোর বলেন, রোহিঙ্গারা নিরাপদে তাদের বাড়িতে ফিরতে চায়। সে জন্য মিয়ানমারে তাদের মূল পরিচয় ও নাগরিক অধিকার নিশ্চিতের পক্ষে বলা হবে। এর আগে সকালে রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করেন তিনি। ওই সময় কক্সবাজারের কুতুপালং ও বালুখালী রোহিঙ্গা শিবিরে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের সঙ্গেও কথা বলেন। দুপুরে বাংলাদেশ সরকারের শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনারের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন তিনি।

মিয়ানমারের সঙ্গে ইইউর নিয়মিত আলাপের অংশ হিসেবে মানবাধিকার ইস্যুতে গিলমোর এই সফর করছেন। তার প্রথম এজেন্ডা হিসেবে স্থান পানে রোহিঙ্গা সংকট। রোহিঙ্গা ইস্যুতে তিনি মিয়ানমারের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। ২০১৭ সালের ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযান শুরুর পর প্রাণভয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসে আশ্রয় নেয় সাড়ে ৭ লাখ রোহিঙ্গা। এর আগে অবস্থান নেওয়াসহ কক্সবাজারের উখিয়া ও টেকনাফের আশ্রয় শিবিরে অবস্থান করছে কমপক্ষে ১১ লাখ ১৮ হাজার রোহিঙ্গা।

ad