‘রোহিঙ্গাদের আর আশ্রয় দেবে না মালয়েশিয়া’

মালয়েশিয়া আর কোনো রোহিঙ্গা শরণার্থীকে আশ্রয় দেবে না। শুক্রবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিন এ ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি জানান, করোনার প্রাদুর্ভাবের কারণে মালয়েশিয়াকে এখন সম্পদের স্বল্পতা ও অর্থনৈতিক বিপর্যয় মোকাবিলা করতে হচ্ছে।

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ মালয়েশিয়া দীর্ঘদিন ধরেই রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে আসছে। তবে সম্প্রতি কর্তৃপক্ষ আশ্রয় নিতে আসা রোহিঙ্গাদের অনেক নৌকা সাগরেই ফেরত পাঠিয়েছে। এছাড়া দেশের ভেতর থেকে শতাধিক রোহিঙ্গাকে আটক করেছে।

শুক্রবার দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলোর জোট আসিয়ানের নেতাদের সঙ্গে এক টেলিকনফারেন্সে মুহিদ্দিন বলেন, ‘কোভিড-১৯ মহামারির কারণে আমাদের সম্পদ ও সামর্থ্যে ইতোমধ্যে টানাটানি পড়েছে। তাই আমরা আর নিতে পারব না। যদিও অন্যায়ভাবে আসতে থাকা রোহিঙ্গাদের আশ্রয়ের প্রত্যাশা অন্যায্যভাবে মালয়েশিয়ার কাছ থেকে প্রত্যাশা করা হয়েছে।’

রাখাইনে নৃশংস নির্যাতনের কারণে লাখ লাখ রোহিঙ্গা মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ায় আশ্রয় নিয়েছে। মিয়ানমার অবশ্য নির্যাতনের এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে। দেশটির দাবি, রোহিঙ্গারা মিয়ানমারের নাগরিক নয় বরং তারা বাংলাদেশ থেকে যাওয়া অবৈধ অভিবাসী।

রোহিঙ্গাদের ব্যাপারে আসিয়ান ও মিয়ানমারকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে মুহিদ্দিন বলেন, ‘আসিয়ানকে অবশ্যই আরও বেশি সহযোগিতা মিয়ানমারকে করতে হবে এবং এই সংকটকে আমাদের পেছনে রাখতে মিয়ানমারকে অবশ্যই আরও বেশি সাহায্য নিজেকেই করতে হবে।’

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন