যৌবন ধরে রাখবে পালং শাকের জুস

তাইয়্যেবা ইসলাম ইমা::
শীতের বাজারে শাক-সবজির মধ্যে অন্যতম পালং শাক। গাড় সবুজ রঙের এ শাকে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, আয়রন, মিনারেল ও প্রোটিন।
আবার এ শাকে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। ক্যারোটিন, পটাসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ভিটামিন (এ, সি, কে বি কমপ্লেক্স) সব ধরনের পুষ্টি উপাদান রয়েছে পালং শাকে।

পালং শাক শরীরের পক্ষে খুবই উপকারী। এটি শরীরে শক্তি যোগায়, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, হজম বৃদ্ধি করে, ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে, দাঁত ও হাড় মজবুত করে। পালং শাকে ভিটামিন এ ও ক্যারোটিন থাকায় দৃষ্টিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

ad

পালং শাকের জুস হাঁপানি ও ডায়াবেটিকস রোগীদের জন্য বেশ কার্যকরী। গর্ভবতী অবস্থায় পালং শাক গর্ভের বাচ্চাকে পরিমাণমতো পুষ্টি যোগায়। এছাড়া পালং শাকের জুস মায়ের বুকের দুধ বাড়াতে সাহায্য করে ও দুধের গুণগত মান বৃদ্ধি করে। ওজন কমাতে ও যৌবন ধরে রাখতে এক অসাধারণ ভূমিকা পালন করে পালং শাকের জুস।

পালং শাকের জুস তৈরীর পদ্ধতি ও খুব সহজ। প্রথমে পাঁচ-ছয়টি পালং শাকের পাতা পরিষ্কার করে ধুয়ে নিন। ব্লেন্ডারে এক গ্লাস পানি ও ৫-৬ টি পাতা, আদা কুচি আধা চা-চামচ পরিমাণ নিয়ে ব্লেন্ড করুন। একটি পরিষ্কার গ্লাসে ছাঁকনির সাহায্যে জুস ছেঁকে নিন। সামান্য একটু লেবুর রস মিক্সড করুন। প্রতিদিন এর জুস খালি পেটে পান করুন।

এক মাসে শরীরের মেদ ও চর্বি ঝরে যাবে অকল্পনীয়ভাবে। নিয়মিত এ জুস পানে যৌবন ধরে রাখবে ও বয়সের ছাপ কমিয়ে দেবে পালং শাকের জুস।