মিয়ানমারে নিহত সেই তরুণীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় মানুষের ঢল

মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে নিহত তরুণীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় রোববার রাজধানী নেপিদোতে হাজারও মানুষ সমবেত হয়। ছবি : সংগৃহীত
মিয়ানমারে সামরিক অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে নিহত তরুণীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় রোববার হাজারও মানুষ রাজধানী নেপিদোতে সমবেত হয়। খবর বিবিসির।

সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে চলমান এই বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত তিনজন মারা গেছে। এর মধ্যে প্রথম মৃত্যু হয় মিয়া থোয়ে থোয়ে খাইনের। ২০তম জন্মদিনের দুই দিন আগে মাথায় গুলিবিদ্ধ হন এই তরুণী। এরপর ১০ দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ১৯ ফেব্রুয়ারি তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

রোববার মিয়া থোয়ে থোয়ে খাইনের অন্তেষ্টিক্রিয়ায় শ্রদ্ধা জানাতে হাজার হাজার মানুষ নেপিদোর রাস্তার পাশে জড়ো হয়। অনেকে তিন আঙুল উঁচিয়ে স্যালুট জানায়।

মিয়া থোয়ে থোয়ে খাইন একটি সুপারমার্কেটের কর্মী ছিলেন। গত ৯ ফেব্রুয়ারি বিক্ষোভকারীদের একটি সমাবেশ ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ গুলি চালালে খাইন গুলিবিদ্ধ হন। তিনি ১০ দিন লাইফ সাপোর্টে ছিলেন। গত শুক্রবার তিনি মারা যান।

খাইন এখন বিক্ষোভকারীদের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে তাঁর ছবি এখন প্রায়শই ব্যবহার করা হচ্ছে।

রোববার খাইনের কফিন কালো ও সোনালি গাড়িতে করে নিয়ে যাওয়া হয়। গাড়ির সঙ্গে চলে শত শত মোটরসাইকেল। আজও দেশজুড়ে বিভিন্ন রাস্তায় জনতা বিক্ষোভ করেছে

Loading...
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন