মামলায় কপাল পুড়ল হামিদ আজাদের

ডেস্ক রিপোর্ট::
কক্সবাজার-২ মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনে সরগরম করা চায়ের স্টলের তুমুল আলোচনাকে ছাপিয়ে ঐক্যফ্রন্ট তথা ২৩ দলীয় জোটের চুড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক দু’বারের এম.পি আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজ উল্লাহ ফরিদ।
গতকাল ৭ ডিসেম্বর বিএনপি ঘোষিত ২০৬ জনের চুড়ান্ত তালিকায় কক্সবাজার-২ আসনে আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজ উল্লাহ ফরিদের নাম রয়েছে। এরই মধ্য দিয়ে দ্বীপ-পরিবেষ্ঠিত উপকূলীয় এই আসনে ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী কারাবন্দী জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নেতা হামিদুর রহমান নাকি বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজ উল্লাহ ফরিদ-এই প্রশ্নের অবসান হয়েছে। এতদিন কক্সবাজার-২ আসনটিতে সাবেক এমপি, জামায়াতের কেন্দ্রীয় সহকারী সেক্রেটারী জেনারেল ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করবেন- এক প্রকার নিশ্চিত ছিলেন। কিন্তু মনোনয়নের চুড়ান্ত তালিকায় হামিদ আজাদের মনোনয়ন প্রাপ্তির ভাগ্যে বাধা হয়ে দাঁড়ায় তাঁর কারাবন্দীত্ব। তাঁর বিরুদ্ধে ঢাকার বিভিন্ন থানায় ৬৩টি মামলা রয়েছে। বেশ কিছু মামলায় জামিন পেলেও তিনি মুক্ত হাওয়ায় নির্বাচনী প্রচারে নামতে পারবেন কিনা- এটি নিশ্চিত না হামিদ আজাদ ও তাঁর দল জামায়াতে ইসলাম। ফলে চুড়ান্ত মনোনয়ন তালিকায় ওয়েটিংয়ে থাকা বিএনপি দলীয় সাবেক এমপি আলমগীর মোহাম্মদ মাহফুজ উল্লাহ ফরিদের ভাগ্য খুলে যায়। পেয়ে যান ধানের শীষ প্রতীক।
সূত্র জানায়-কেন্দ্রীয় জামায়াত নেতৃবৃন্দ সবকিছু বিবেচনা করে কক্সবাজার-২ আসনের পরিবর্তে ছাত্রশিবিরের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদের জন্য ঐক্যফ্রন্টের কাছে পটুয়াখালী -২ আসনটি কনফার্ম করেছে। উল্লেখ্য দু’বারের নির্বাচিত সাবেক এমপি আলমগীর ফরিদের বাড়ি মহেশখালী উপজেলার বড় মহেশখালী ইউনিয়নে। অন্যদিকে ২০০৮ সালে নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে নির্বাচিত জামায়াতের কেন্দ্রীয় নেতা হামিদ আজাদের বাড়ি দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ার উত্তর ধুরুং ইউনিয়নে।

ad