‘বিয়ের কারণেই খেলায় পরিপক্বতা এসেছে’

বর্তমানে বাংলাদেশের সবচেয়ে ক্ল্যাসিক ব্যাটসম্যান বলা হয় লিটন কুমার দাসকে। বছর পাঁচেক আগে জাতীয় দলে অভিষেক হলেও শুরুর পথটা ছিল কাঁটায় ভরা। মাঝে মাঝে ব্যাটে ঝলক দেখা গেলেও অধিকাংশ সময় হতাশ করেছেন ভক্তদের। সেই লিটন এবারের বিপিএলে অন্য রূপে। শুরু থেকেই রানের ফোয়ারা ছোটাচ্ছেন। আছেন বঙ্গবন্ধু বিপিএলে রান সংগ্রাহকদের তালিকায় চতুর্থ স্থানে। এমন পরিবর্তনের কারণ হিসেবে বিয়েকেই উল্লেখ করলেন লিটন দাস।
গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে রাজশাহীর হয়ে ৪৮ বলে ৭৫ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেছেন লিটন দাস। ইনিংসটির পুরোটা জুড়েই ছিলো আত্মবিশ্বাস আর সৌন্দর্যের ছোঁয়া। সবমিলিয়ে আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক ধারাবাহিক তার ব্যাট। ম্যাচ শেষে এমন পরিবর্তনের কারণ ব্যাখ্যা করেন লিটন। সেখানেই বিয়ের কথা সামনে নিয়ে আসেন এ তিনি।

ভালো করার পেছনে এ ড্যাশিং ওপেনার বলেন, ‘বেশি ম্যাচ ও ইনিংস খেলাটা তো অবশ্যই আছে। তাছাড়া আমার মনে হয়, আমি সৌভাগ্যবান যে আমি খুব কম বয়সেই বিয়ে করে ফেলেছি। বিয়ে জিনিসটা আমার পরিপক্বতাকে আরেকটু বাড়িয়ে দিয়েছে। অন্যদের ব্যাপারে কি হয় তা জানি না। তবে আমি এটা অনুভব করতে পারি। বিয়ের জন্য মনে হয় নিজেকে একটু সিনিয়র লাগছে।’

মাঝে জাতীয় দলে আসা যাওয়ার মাঝে ছিলেন। দল থেকে বাদ পড়ার পরেও আত্মবিশ্বাস না হারানোকে অন্যতম কারণ হিসেবে দেখছেন লিটন। তিনি বলেন, ‘আমি যখন ২০১৬/১৭ সালে খারাপ পারফর্ম করেছি এবং জাতীয় দলের বাইরে চলে যাই, তখন আমার আগের থেকে পরিপক্বতা এসেছে। কারণ আমি কখনো অফ ফর্ম থাকিনি। ওই জায়গায় আমি জীবনে অনেক কিছু শিখেছি। তাছাড়া বিয়ের পরে মাঠে এবং মাঠের বাইরে সব জায়গাতেই আমার পরিপক্বতা বেড়েছে।’

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন