টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বললেন মাহমুদউল্লাহ

টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় বলছেন মাহমুদউল্লাহ। হারারে টেস্টের পঞ্চম দিন মাঠে নামার আগে সতীর্থরা ‘গার্ড অব অনার’ দিয়েছেন মাহমুদউল্লাহকে। নিজে কোন ঘোষণা দেননি, তবে গার্ড অব অনার ও পরবর্তীতে টেলিভিশন সম্প্রচারেও মাহমুদউল্লাহর অবসরের কথা নিশ্চিত করেছেন ধারাভাষ্যকাররা।

হারারে টেস্টের তৃতীয় দিনের খেলা শেষ হওয়ার পর ড্রেসিংরুমে মাহমুদউল্লাহ সতীর্থদের নিজের অবসরের কথা জানান। তবে তখন বিসিবি বা মাহমুদউল্লাহ, কারও পক্ষ থেকেই আনুষ্ঠানিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

পঞ্চমদিন ড্রেমিংরুম থেকে মাঠে প্রবেশের পথে সতীর্থরা তাকে দাঁড়িয়ে সম্মান জানান। সেই সময়ে ধারাভাষ্যে ছিলেন শামীম আশরাফ চৌধুরী। তিনি বলেন, ‘আজ সকালে এই ভদ্রলোক, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বাংলাদেশ স্কোয়াডের সিনিয়র ক্রিকেটার প্রথম ইনিংসে ১৫০ রান করেছিলেন। তবে তিনি প্রত্যেককে জানিয়েছে, টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসর নিচ্ছেন। এজন্য সতীর্থরা তাকে গার্ড অব অনার দিয়েছে। এই টেস্টের পর বাংলাদেশ দীর্ঘদিন টেস্ট ম্যাচ খেলবে না। তার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানিয়ে সতীর্থরা গার্ড অব অনার দিয়েছে।’

২০২০ সালের ফেব্রুয়ারির পর এই প্রথম টেস্ট দলে ফিরেছিলেন তিনি। ফেরার ম্যাচে হারারেতে করেছেন অপরাজিত ১৫০। দলকে বড় স্কোরের পথে এগিয়ে নিতে বড় ভূমিকা রেখেছিল তার সেই ইনিংস।

২০০৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে কিংস্টোনে টেস্ট অভিষেক হয়েছিল মাহমুদউল্লাহর। এটি ছিল তার ক্যারিয়ারের ৫০ তম টেস্টও। ক্যারিয়ারে ৩৩.৪৯ গড়ে তিনি করেছেন ২ হাজার ৯১৪ রান। এ টেস্টের সেঞ্চুরিটি ছিল তার ক্যারিয়ারের ৫ম। বোলিংয়ে এখন পর্যন্ত ৪৩ উইকেটও আছে মাহমুদউল্লাহর।

বাংলাদেশে তার চেয়ে টেস্টে বেশি রান আছে কেবল পাঁচজনের। তারা হলেন- তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, মুমিনুল হক ও হাবিবুল বাশার। তার চেয়ে বেশি টেস্ট তামিম, মুশফিক, সাকিব, হাবিবুলের ও আশরাফুল।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন