টেকনাফ স্থলবন্দরে অর্ধকোটি টাকার মসলাবোঝাই ট্রলার ডুবি

উখিয়া নিউজ ডটকম:;
কক্সবাজারের টেকনাফ স্থলবন্দরে নোঙর অবস্থায় থাকা ১৮শ বস্তা মসলাবোঝাই একটি কাঠের বোট (ট্রলার) ডুবে গেছে। জোয়ারের তোড়ে পল্টুনের সঙ্গে ধাক্কা লেগে কাঠের বোটটির নিচের অংশ ফেটে গিয়ে এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। শনিবার (১১ আগস্ট) বিকেলে টেকনাফ স্থলবন্দরের জেটি ঘাটে ট্রলারটি ডুবে যায়।

এতে কোনো হতাহত না হলেও ব্যবসায়ীদের অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন আমদানিকারকরা। তাদের দাবি, বন্দর কর্তৃপক্ষ একটু সতর্ক হয়ে যখনই বোট নোঙর করার পরপরই মালামাল খালাসের ব্যবস্থা করলে এ ক্ষতির মুখে পড়তে হতো না তাদের। অথচ রাজস্বও জমা নিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

টেকনাফ স্থলবন্দরের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক এহতেশামুল হক বাহাদুর বলেন, বৃহস্পতিবার বিকেলে সীমান্ত বাণিজ্যের আওতায় মিয়ানমারের মংডু শহর থেকে এক হাজার ৮২৯ বস্তা (৩৩ টন) মসলাবাহী ট্রলারটি স্থলবন্দরের জেটিতে এসে নোঙর করে।

তিনি আরও জানান, ট্রলারটি স্থলবন্দরের জেটিতে নোঙর করার পর আইজিএম (আমদানি ডকুমেন্ট) জমা দেয়া হয়। পণ্য খালাসের জন্য শনিবার বিল অব এন্টিও (রাজস্ব) জমা দেয় কাস্টমস কর্তৃপক্ষকে। পণ্য খালাসের জন্য অপেক্ষমাণ থাকা অবস্থায় এ ঘটনাটি ঘটে।

ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের দাবি, স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের খাম-খেয়ালিপনা ও শ্রমিক সংকটের কারণে এ দুঘর্টনা কবলে পড়েছেন তারা।

টেকনাফ স্থলবন্দরেরর মহাব্যবস্থাপক মো. জসিম উদ্দিন ট্রলার ডুবির সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পণ্য ও ট্রলারটি উদ্ধারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে। কী কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।