ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, যানবাহন ও পথচারীকে

টেকনাফ-উখিয়ায় লকডাউনের নির্দেশনা অমান্য করায় আড়াই লাখ টাকা জরিমানা

বিশেষ প্রতিবেদক::
কোভিড-১৯ সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকার কর্তৃক ঘোষিত লকডাউনের নির্দেশনা অমান্য করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করায় কক্সবাজারের টেকনাফ ও উখিয়ার ১১১টি মামলায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, যানবাহন ও পথচারীকে ২ লাখ ৫৪হাজার ৩০০টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। এসময় পাঁচশতাধিক মাস্ক ও বিতরণ করা হয়েছে।

সোমবার বিকেল ৫টা থেকে (আজ) গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে আটটা পর্যন্ত টেকনাফ পৌরসভার বাস স্টেশন, উপরের বাজার ও উখিয়া সদর, কোট বাজার ও পালংখালী স্টেশন এলাকায় পৃথক অভিযান চালানো হয়েছে।

টেকনাফের অভিযানের নেতৃত্ব ছিলেন -উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবুল মনসুর ও টেকনাফ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো হাফিজুর রহমান এবং উখিয়ার অভিযানের নেতৃত্ব ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ( ইউএনও) নিজাম উদ্দিন আহমেদ, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আমিমুল এহসান খান, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহমেদ সঞ্জুর মোরশেদ সহ একদল পুলিশ সদস্য।

সংশ্লিষ্ট উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, সরকার কর্তৃক ঘোষিত করোনাভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউনের কার্যকর করার জন্য সব ধরনের নির্দেশনা মেনে চলতে গত দু’দিন ধরে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং করা হচ্ছে। এরমধ্যেও নির্দেশনা অমান্য করায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করা হয়। আগামীতে নির্দেশনা অমান্য কারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থার পাশাপাশি কারাদণ্ডের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

টেকনাফে ইউএনও পারভেজ চৌধুরী বলেন, লকডাউনের নির্দেশনা অমান্য করায় ৫৪টি মামলায় যানবাহন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষ ও পথচারীকে ৪৬ হাজার ৪০০টাকা অর্থদন্ড আদায় করা হয়েছে এবং দু’শতাধিক মাস্ক বিতরণ করা হয়েছে।

উখিয়ার ইউএনও নিজাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, উখিয়ায় ৫৭টি মামলায় যানবাহন, ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ও পথচারীকে ২ লাখ ৭ হাজার ৯০০টাকা অর্থদন্ড করা হয়েছে। মুখে মাস্ক না থাকায় অনেককে সতর্ক করে বিনামূল্যে তিনশতাধিক মাস্ক ও বিতরণ করা হয়েছে।

Loading...
ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন