টেকনাফে প্রাইমারী সমাপণী পরীক্ষায় ২টি কেন্দ্র পরিবর্তন

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম, টেকনাফ::
পাবলিক পরীক্ষায় সর্র্র্র্র্ববৃহৎ আসর শিক্ষা জীবনের প্রথম সার্টিফিকেট পরিক্ষা প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী এবং ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরিক্ষায় টেকনাফ উপজেলায় এবারে ২টি কেন্দ্র পরিবর্তন করা হয়েছে। তাছাড়া পরিক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় আগামী বছর থেকে আরও ১টি নতুন কেন্দ্র বৃদ্ধি করা হবে বলে জানা গেছে। নতুন কেন্দ্র হচ্ছে টেকনাফ সদর ইউনিয়নের দরগাহছড়া হামিদিয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুল। টেকনাফ উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ এমদাদ হোসেন চৌধুরী (০১৮১৬৬০৯১৪৭) কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্টিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরিক্ষা বিষয়ক সভার সিদ্ধান্তের বরাত দিয়ে উক্ত তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, পরিবর্তিত কেন্দ্র ২টি হচ্ছে হোয়াইক্যং সরকারী প্রাইমারী স্কুল, নয়াবাজার সরকারী প্রাইমারী স্কুল। প্রাইমারী স্কুলের পরিক্ষা হলেও বিগত বছরগুলোতে পরিক্ষা চলত পাশ্ববর্তী হাইস্কুল তথা হোয়াইক্যং আলহাজ্ব আলী-আছিয়া হাইস্কুল এবং নয়াবাজার হাইস্কুলে। কেন্দ্র সচিব হিসাবেও দায়িত্ব পালন করতেন সংশ্লিষ্ট হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষকগণ। এনিয়ে অনেকের মাঝে ক্ষোভ ছিল। এবারে তার পরিবর্তন ঘটবে। এখন দায়িত্ব পালন করবেন প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক।

নতুন কেন্দ্র হিসাবে মনোনীত দরগাহছড়া হামিদিয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের তথ্যানুসন্ধানে জানা যায়, টেকনাফ সদর ইউনিয়নের হাতিয়ারঘুনা গ্রামের বাসিন্দা বিশিষ্ট সমাজ সেবক দাতা ও শিক্ষানুরাগী আলহাজ্ব হামিদ হোছাইন বাড়ির নিকটবর্তী দরগাহছড়া হামিদিয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের দাতা এবং প্রতিষ্টাতা। তিনি উক্ত স্কুল প্রতিষ্টার জন্য জন্য সড়কের পাশেই মুল্যবান ৪০ শতক জমি দান করেছেন। ১৯৯২ সালের ১ জানুয়ারী স্কুলটি প্রতিষ্টিত। শুধু জমি দান করেই ক্ষান্ত হননি। স্কুল গৃহ নির্মাণ থেকে শুরু করে শিক্ষকদের বেতন সবই তিনি একা বহন করেছেন একাধারে দীর্ঘ বছর ধরে। এছাড়াও তিনি বাড়ির পাশে হাতিয়ারঘুনা গ্রামে নিজ জমির উপরে জামে মসজিদ, মক্তব, নুরানী মাদ্রাসা, এতিমখানা, হেফজখানা এবং ২০১৪ সালে মাহমুদিয়া বালিকা মাদ্রাসা প্রতিষ্টা করেছেন।

নতুন কেন্দ্র চালুর সরকারী সিদ্ধান্তের প্রতি সাধুবাদ জানিয়ে তাঁর পুত্র মাহমুদিয়া বালিকা মাদ্রাসার পরিচালক (মুহতমিম) আলহাজ্ব হাফেজ মাওঃ জামাল হোছাইন (০১৮১৯০৯৭৯১০) জানান দরগাহছড়া হামিদিয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলে বর্তমানে ৩টি ভবন রয়েছে। মনোরম পরিবেশে পরিক্ষা অনুষ্টানের জন্য চমৎকার উপযোগী স্থান।

দরগাহছড়া হামিদিয়া সরকারী প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক চকরিয়ার মাওঃ নুরুল হোছাইন (যোগদান ১৯৯৭) জানান চলতি শিক্ষা বছরে এ স্কুলে শিশু শ্রেনীতে ২১ জন, ১ম শ্রেনীতে ১৯ জন, ২য় শ্রেনীতে ৩৩ জন, ৩য় শ্রেনীতে ৫০ জন, ৪র্থ শ্রেনীতে ৪৬ জন, ৫ম শ্রেনীতে ৩১ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। বিগত ৩ বছর সমাপণী পরিক্ষায় শতভাগ পাশ করছে এ স্কুলের শিক্ষার্থীরা। বর্তমানে লোহাগাড়ার কাজল কান্তি দাশ (২০০০), চাঁদপুরের মোঃ মমতাজ উদ্দিন (১৯৯৭), টাঙ্গাইলের জাহিদ হাসান মিঞা (১৯৯২) সহকারী শিক্ষক হিসাবে কর্মরত আছেন।

উল্লেখ্য, পূর্ব নির্ধারিত তারিখ অনুসারে ১৯ নভেম্বর রবিবার থেকে শুরু হওয়া প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী এবং ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরিক্ষায় এবারে টেকনাফ উপজেলায় ১১টি কেন্দ্রে সর্বমোট ৫ হাজার ৬৩১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। তম্মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনীতে ১ হাজার ৮৩৭ জন বালক, ২ হাজার ২৯৮ জন বালিকা মোট ৪ হাজার ২২৯ জন। ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরিক্ষায় ৫৭৮ জন বালক, ২ হাজার ৮২৪ জন বালিকা। মোট ১ হাজার ৪০২ জন।