টেকনাফে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য প্রদানকারির শাস্তির দাবিতে ছাত্রলীগের বিক্ষোভ মিছিল

কক্সবাজারের টেকনাফ-উখিয়া সংসদীয় আসনের ‘এমপি আবদুর রহমান বদি শেখ হাসিনার চেয়েও বেশী জনপ্রিয়’ বলে এমপি বদির ঘনিষ্টজনের এমন ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্যের খবরটিই গতকাল সোমবার দিনব্যাপি কক্সবাজারের জন্য ছিল আলোচনার বিষয়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টি নিয়ে ঝড় উঠেছে। এমনকি প্রধানমন্ত্রীর সাথে এমপি বদির তুলনা করে বক্তব্য প্রদানকারি আওয়ামী লীগ নেতার শাস্তির দাবিতে টেকনাফে গতকাল সন্ধ্যায় ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিলও করেছে।
গতকাল সোমবারের পত্রিকায় প্রকাশিত ‘শেখ হাসিনার চেয়েও বেশী জনপ্রিয় বদি!’ শিরোনামের সংবাদটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়েছে। ফেসবুকের আইডিধারিরা সংবাদপত্রের প্রকাশিত খবরটি একে অপরের সাথে শেয়ার করছে। ফেসবুকে অনেকেই নানা মন্তব্য ছুঁড়ে দিয়েছেন। অনেকেই এমপি বদি ও প্রধানমন্ত্রীকে তুলনা করে যে বক্তব্য দেয়া হয়েছে সেইসব নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশের মাধ্যমে কঠোর শাস্তির দাবি তুলেছেন। এমপি বদিকে উদ্দেশ্য করে একজন এমনও মন্তব্য করেছেন- ‘নৌকা প্রতীকটা রেখে আসুন। তখন আপনার জনপ্রিয়তার মাপকাঠি বুঝতে কষ্ট হবে না। বুঝবেন নৌকা ছাড়া কোথাকার পানি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায়।’
কক্সবাজারের নানা প্রান্তের লোকজনের মধ্যে এমন খবরটি নিয়ে ব্যাপক কৌতুহলেরও সৃষ্টি করেছে। নানা জন নানা রকমের মন্তব্য ছুঁড়ছে। হাট-বাজার আর চা দোকানেও আলাপের যেন শেষ নেই। সবখানেই আলাপের বিষয় হচ্ছে যে, এমপি আবদুর রহমান বদির সাথে জনপ্রিয়তায় বঙ্গবন্ধু তনয়া শেখ হাসিনার তুলনার বিষয়টি।
আপরদিকে প্রধানমন্ত্রীর চেয়ে এমপি বদির জনপ্রিয়তা বেশী বলে ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য প্রদানকারি টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এম, জহির হোসেনের সংগটন বিরোধী কার্যকলাপের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগ এক সভা আহ্বান করেছে। টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুল বশর একথা নিশ্চিত করেছেন।
এদিকে এমপি বদির সাথে প্রধানমন্ত্রীকে তুলনা করে ধৃষ্টতাপূর্ণ বক্তব্য প্রদানকারি টেকনাফ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এম জহির হোসেনের শাস্তির দাবিতে গতকাল সন্ধ্যায় টেকনাফ উপজেলা ছাত্রলীগ, টেকনাফ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ ও টেকনাফ সদর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। সুত্র: অ,দেশবিদেশ