জাতিসংঘে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরার প্রস্তুতি ৫ দেশের

ডেস্ক রিপোর্ট::
আসন্ন জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে বিশ্বের প্রভাবশালী পাঁচটি দেশ রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরার প্রস্তুতি নিচ্ছে। এছাড়া আরও বেশ কয়েকটি দেশ জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরে সমাধানের প্রত্যাশা করবে। সে কারণে আসন্ন অধিবেশনে রোহিঙ্গা সংকটই আলোচনায় প্রাধান্য পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সূত্র জানায়, জাতিসংঘের ৭৩তম সাধারণ অধিবেশন সামনে রেখে বিশ্বের প্রভাবশালী দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, কানাডা, ফ্রান্স ও মালয়েশিয়া রোহিঙ্গা সংকট বিশেষ গুরুত্বের সঙ্গে তুলে ধরবে। এসব দেশ ইতোমধ্যেই এ বিষয়ে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। এছাড়াও তুরস্ক, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, আলজেরিয়া, মরক্কো, সুদান ইত্যাদি দেশগুলোর পক্ষ থেকে জাতিসংঘে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরার প্রস্তুতি নিচ্ছে বলেও জানা গেছে।

রোহিঙ্গা সংকট শুরু হওয়ার পর থেকেই এ সংকট সমাধানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র দৃঢ় ভূমিকা পালন করে আসছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যেই রাখাইন অভিযানে অংশ নেওয়া মিয়ানমারের সৈনিকদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন সামনে রেখে দেশটি ব্যাপক প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্র সচিব এম শহীদুল হকের সঙ্গে জাতিসংঘ অধিবেশনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরার বিষয়ে জানিয়েছেন।

মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট জানিয়েছেন, জাতিসংঘের আসন্ন অধিবেশনে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরবে। এছাড়া তিনি জানান, চলতি মাস থেকে যুক্তরাষ্ট্র নিরাপত্তা পরিষদে চেয়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছে। সে কারণে নিরাপত্তা পরিষদের ফোরামেও রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে অগ্রণী ভূমিকা রাখবে যুক্তরাষ্ট্র।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্র ও কমনওয়েলথ বিষয়ক সচিব জেরেমি হান্ট জানিয়েছেন, আসন্ন জাতিসংঘ অধিবেশন সামনে রেখে দেশটির পক্ষ থেকে প্রস্তুতি চলছে। জাতিসংঘ অধিবেশন চলাকালে যুক্তরাজ্য মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকেরও আয়োজন করবে। সেখানে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরা হবে।

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে কানাডা সরকারের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যেই একজন বিশেষ দূত নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। কানাডার বিশেষ দূত বব রে বাংলাদেশ ও মিয়ানমার সফর শেষে চূড়ান্ত প্রতিবেদনও পেশ করেছেন। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন সামনে রেখে কানাডা সরকার বিশেষ প্রস্তুতিও নিচ্ছে। কানাডার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্রিস্টিয়া ফ্রিল্যান্ড জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে দেশটি আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে। জাতিসংঘের অধিবেশনেও কানাডা এই সংকট তুলে ধরবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে ফ্রান্স ও মালয়েশিয়াও রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে দৃঢ় ভূমিকা পালন করে আসছে। আসন্ন জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে ফ্রান্স ও মালয়েশিয়ার পক্ষ থেকে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।

জাতিসংঘের আসন্ন অধিবেশনের আগেই গত ১২ সেপ্টেম্বর ইসলামী সম্মেলন সংস্থার (ওআইসি) সংসদীয় প্রতিনিধি দল কক্সবাজারে গিয়ে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেছে। জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশন সামনে রেখেই এই প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ সফর করেছে। তারা নিজ নিজ দেশের সরকারের কাছে রোহিঙ্গা পরিস্থিতি জানাবেন। সে অনুযায়ী দেশগুলোর পক্ষ থেকে জাতিসংঘে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরা হবে।

গত বছর জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ অধিবেশনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের পক্ষ থেকে রোহিঙ্গা সংকট তুলে ধরা হয়েছিলো। এ বছরও সাধারণ অধিবেশনে রোহিঙ্গা সংকটই প্রাধান্য পাবে বলে আশা করা হচ্ছে।
বাংলাদেশের পক্ষ থেকে গত বছর জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে পাঁচ দফা পেশ করেছিলেন। চলতি বছরও প্রধানমন্ত্রী এই সংকট বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরবেন।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২১ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ অধিবেশনে যোগ দিতে যুক্তরাষ্ট্রের উদ্দেশে রওনা দেবেন। ২৩-২৯ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এই অধিবেশন চলবে।