ad

ছাত্রলীগের কমিটিতে মিস ওয়ার্ল্ডের সেই বিবাহিত লাবণী

ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্রের ৫-এর গ ধারা অনুযায়ী কোনো বিবাহিত ব্যক্তি সংগঠনটির পদে আসতে পারবেন না। কিন্তু বিবাহিত হয়েও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পেয়েছেন মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়া বিতর্কিত আফরিন সুলতানা লাবণী। তিনি উপ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদ পেয়েছেন। গঠনতন্ত্র লঙ্ঘন করে ছাত্রলীগে পদ পাওয়ায় সমলোচিত হচ্ছেন তিনি।

লাবণী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাকাউন্টিং অ্যান্ড ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের ছাত্রী।এর আগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগ কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন লাবণী।

বিবাহিত হয়েও তিনি ২০১৮ সালে মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ প্রতিযোগিতায় অংশ নেন। প্রথমে বিষয়টি অজানা থাকায় তিনি সেরা দশে জায়গা করে ‘বিহেভিয়ার অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছিলেন। পরে জানা যায়, লাবণীর সাবেক স্বামী জামালপুর সদরের বাগেরহাটা কলেজ রোডের বাসিন্দা আতাউর রহমান আতিক। আতিক পেশায় ব্যবসায়ী, পাশাপাশি কয়েকটি মিউজিক ভিডিওতে মডেল হয়েও কাজ করেছেন তিনি। ২০১২ সালে তাদের বিয়ে হয়। পরবর্তীতে তাদের বিচ্ছেদ হয়।

গ্র্যান্ড ফাইনালে ‘তিনটি উইশ’ নিয়ে বিচারক ইমির প্রশ্নের হাস্যকর উত্তর দিয়েছিলেন লাবণী। তারপর সোশ্যাল মিডিয়ায় এ নিয়ে ব্যাপক ট্রল হয়।

ad