ad

চরিত্র পছন্দ হওয়াতে অভিনয় করতে রাজি হয়েছি : জেসিয়া

জেসিয়া ইসলাম। এবার ‘মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ’ হয়েছেন তিনি। চীনে মিস ওয়ার্ল্ড প্রতিযোগিতায় জেসিয়ার পারফর্মন্যান্সও বেশ ভালো ছিল। মিস ওয়ার্ল্ডের মঞ্চ থেকে চলে আসার পর অনেক নাটক ও চলচ্চিত্রে অভিনয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন জেসিয়া কিন্তু অভিনয় করেননি।সম্প্রতি ‘ব্যাচেলর ডট কম’ নামের একটি ধারাবাহিক নাটকে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন তিনি। নাটকটিতে অভিনয়ের করার প্রসঙ্গ ও অন্যান্য আরও বিষয় নিয়ে এনটিভি অনলাইনের সঙ্গে কথা বলেছেন জেসিয়া।

এনটিভি অনলাইন : ‘ব্যাচেলর ডট কম’ নামের নাটকটিতে অভিনয় করতে যাচ্ছেন। এর আগে আপনাকে অভিনয় করতে দেখা যায়নি। এর পেছনে প্রধান কারণ কী?

জেসিয়া ইসলাম : এটা সত্যি, অনেক প্রস্তাব পেয়েছি কিন্তু আমার নাটকের চরিত্রগুলো পছন্দ হয়নি। এই নাটকে চরিত্র পছন্দ হওয়াতে অভিনয় করতে রাজি হয়েছি।

এনটিভি অনলাইন : নাটকে আপনার চরিত্র সম্পর্ক কিছু বলুন।

জেসিয়া ইসলাম : চরিত্রের নাম এখনো আমি জানি না। তবে আমাকে ঢাকার এক ধনী পরিবারের মেয়ে হিসেবে নাটকটিতে দেখা যাবে। আমি বাসা ছেড়ে হোস্টেলে থাকি কারণ মা মারা যাওয়ার পর বাবা আর একটি বিয়ে করেন। বাবার দ্বিতীয় বিয়ের কারণে তার সঙ্গে আমার সম্পর্কের অবনতি হতে থাকে। এভাবে এগিয়ে যায় নাটকের গল্প।

এনটিভি অনলাইন : নাটকটির গল্পের চরিত্রের মতো আমাদের দেশে অনেক মেয়ে আছে। সেসব মেয়েকে নিয়ে আপনি কি ভাবেন?

জেসিয়া ইসলাম : অবশ্যই। আমাদের সমাজে এমন চিত্র এখন অনেক দেখা যায়। আমি সেসব মেয়ের উদ্দেশ্যে বলব, জীবনে যাই ঘটুক না কেন, সামনে এগিয়ে যেতে হবে। নিজের পায়ে শক্ত হয়ে দাঁড়িয়ে কাজ করতে হবে।পরিবার ও সমাজের অনেক টানাপড়েন আসবেই কিন্তু তাই বলে হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকা যাবে না। অস্বাভাবিক আচরণ করাও শোভন হবে না। বলতে পারেন,‘ব্যাচেলর ডটকম’ বাস্তবধর্মী একটা নাটক হতে যাচ্ছে।

এনটিভি অনলাইন : অভিনয়ের প্রস্তুতি নেওয়া কি শুরু করেছেন?

জেসিয়া ইসলাম : এখনো করিনি। ফেব্রুয়ারিতে শুটিং। এর আগে নাটকের পরিচালক ইফতেখার শুভ ভাইয়ের সঙ্গে কথা বলব। চরিত্র সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানব।

এনটিভি অনলাইন : ২০১৮ সালে নিজেকে কোন অবস্থানে দেখতে চান?

জেসিয়া ইসলাম : এখনো জানি না, কী করব। তবে ভালো কিছু করার ইচ্ছে আছে।