ঘুমধুম সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে মিয়ানমার যাবে ১৫০ রোহিঙ্গা

উখিয়া নিউজ ডেস্ক::
বান্দরবানের ঘুমধুম সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে ১৫০ রোহিঙ্গা মিয়ানমার যাবে বলে জানিয়েছেন শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার এবং জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের সদস্য মো. আবুল কালাম।

বুধবার (১৪ নভেম্বর) বিকেল ৫টার দিকে প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তাদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক শেষে এ কথা জানান তিনি।

জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের সদস্য মো. আবুল কালাম জানান, সবকিছুর প্রস্তুতি শেষ। বৃহস্পতিবারই প্রত্যাবাসন শুরু হবে। ৩০ পরিবারের ১৫০ রোহিঙ্গা মিয়ানমার যাবে। দুপুরের দিকে এ কার্যক্রম শুরু হবে।

তিনি আরও বলেন,‘আমরা রোহিঙ্গাদের ঘুমধুমের ট্রানজিট ক্যাম্পে নিয়ে যাব। সেখান থেকে মিয়ানমারের প্রতিনিধিরা তাদের আনুষ্ঠানিকভাবে গ্রহণ করবেন। প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ধারাবাহিকভাবে চলবে।’

ad

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- চট্টগ্রাম বিভাগীয় অতিরিক্ত কমিশনার নুরুল আলম নিজামীসহ প্রশাসনের উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

তবে সন্ধ্যা ৭টার দিকে জাতিসংঘের একটি প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠকের কথা রয়েছে তার।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ এবং মায়ানমার একটি সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করে। রোহিঙ্গাদের নিরাপদ প্রত্যাবাসনের লক্ষ্যে উভয় দেশ ঐকমত্যে পৌঁছে স্মারকটিতে স্বাক্ষর করেছিল। সেই স্মারকের অংশ হিসেবে বাংলাদেশ মিয়ামারের কাছে ৮ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা পাঠায়। যাচাই-বাছাই শেষে মিয়ানমার ওই তালিকা থেকে ৫ হাজার ৫শ জনকে প্রত্যাবাসনের ছাড়পত্র দেয়। সেই ছাড়পত্রের মধ্য থেকে ২ হাজার ২৬০ জন রোহিঙ্গাকে স্বদেশে ফেরত পাঠাতে চায় বাংলাদেশ।