খুলছে মক্কা-মদিনা, প্রথম ধাপে ১ লাখ ৮ হাজার জনের ওমরাহ’র অনুমতি

মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘ সাত মাস বন্ধ থাকার পর পবিত্র ওমরা পালনের জন্য মক্কা এবং মদিনার পবিত্র স্থানগুলো উন্মুক্ত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সৌদি সরকার। রবিবার (৪ অক্টোবর) থেকে ওমরাহ পালনের জন্য সৌদি সরকার সীমিত পরিসরে যে অ্যাপ চালু করেছে তাতে আবেদন করে ৫ দিনে ১ লাখ ৮ হাজার ৪১ জন চূড়ান্ত অনুমতি পেয়েছেন। শুক্রবার (৩ অক্টোবর) সৌদি আরবের হজ ও ওমরাহ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানায়। আরব নিউজের প্রতিবেদন অনুযায় মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, অনুমতি পাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ৪২ হাজার ৮৭৩ জন সৌদি আরবের এবং বাকি ৬৫ হাজার ১২৮ জন সৌদি আরবে অবস্থান করা বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নাগরিক।

সৌদি সরকার সম্প্রতি সীমিত পরিসরে ওমরাজ হজ শুরুর সিদ্ধান্তের কথা জানায়। এরপর গত ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হয় মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ‘আই-টামারনা’র মাধ্যমে ওমরাহ হজ পালনের নিবন্ধন কার্যক্রম। নিবন্ধন শুরুর প্রথম কয়েক ঘণ্টার মধ্যে প্রথম দশ দিনের ওমরাহ পালনের নির্ধারিত কোটা পূর্ণ হয়ে যায়।

প্রথম এক ঘণ্টায় ওমরাহ পালনের জন্য ১৬ হাজার আবেদন জমা পড়ে, সপ্তাহের শেষে যা ৩ লাখ ৯ হাজার ৬৮৬ জনে পৌঁছায়। এর মধ্যে অনুমতি দেওয়া হলো ১ লাখ ৮ হাজার ৪১ জনকে। ওমরাহ হজ পালনের জন্য আবেদনকারীদের মধ্যে ৩৫ শতাংশেরই বয়স ৬০ বছরের বেশি।

এ ছাড়া ৩১ থেকে ৪০ বছর বয়সী রয়েছেন ২৬ শতাংশ, ২০ থেকে ৩০ বছর বয়সী ১৭ শতাংশ এবং ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সী ১৪ শতাংশ। সব চেয়ে কম আবেদন করেছেন ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে, ৮ শতাংশ।

পূর্ব ঘোষিত সিদ্ধান্ত ও নিয়ম অনুযায়ী রোববার থেকে ওমরাহ শুরু হবে। প্রথম ধাপে সৌদি আরবে অবস্থানকারী স্থানীয় ও প্রবাসীরা নির্ধারিত নিয়ম ও শর্ত পালন সাপেক্ষে ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবেন। প্রথম ধাপে প্রতিদিন ওমরাহ পালনের সুযোগ পাবেন ৬ হাজার মানুষ।

২৪ ঘণ্টায় ১২টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে ওমরাহ ও জেয়ারত সম্পন্ন করতে হবে। প্রতি গ্রুপে ৫০০ ব্যক্তি অংশগ্রহণ করতে পারবেন বলে সিদ্ধান্তের কথা জানায় দেশটির কর্তৃপক্ষ। ওমরাহ চলাকালে মক্কার মসজিদে হারাম তথা কাবা শরিফের পুরো আঙ্গিনা প্রতিদিন ১০ বার জীবাণুনাশক কার্যক্রম চালাবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন