কেনে চলর অ-ভাই

14040130_162850494152460_4577436599868162149_nএম এস রানা::
যুগ-যুগ ধরে মানব সমাজে হাঁসি ঠাট্রা রং তামাশা একটি জীবনের অবিছিন্ন অংশ হয়ে দাড়িয়েছে। কেউ করে জীবনের তাগিদে মানুষকে হাঁসাতে  কেউ করে নিজেকে রসিক মানুয হিসেবে পরিচিত করার জন্য, আবার কেউ করে অন্যের দেখাদেখিতে।  লোকমূখে হঠাৎ প্রচলন হওয়া কথা গুলোতে যেমন কিছু সংখ্যক লোক আনন্দ পেয়ে থাকে, তেমনি সুশীল সমাজের অনেক কে বিব্রত পরিস্হিতির সৃষ্টি করে থাকে। কৌতুক বা হাস্য রস্যের ছলে বলা কথা গুলো কিছু কিছু এলাকায় অনেক সময় টপ অব দ্যা টাউন হয়ে দাড়াঁয়। যেমন বিগত দিনে লোক মূখে ছিল জামাই লেস্কের, হৈ হৈ মাতু, পাইন্নায়াপ,  জুতার নিছে পাঁচশত ইত্যাদি, তবে সব বাক্য কে ছাঁপিয়ে চট্রগ্রাম, কক্সবাজারে ঝড় তুলেছে কেনে চলর অ-ভাই। কথাটি ছোট হলেও উচ্চারনের গতির কারনে অনেক এলাকায় মহা কান্ডের ঘটনাও ঘটছে অহরহ। অনেক  রসিকপ্রিয় মানুযের কাছে শুধু মাত্র ঠাট্রা মশকারা হলেও কিছু মানুষ এটাকে অপমান জনক বাক্য বলে গন্য করে থাকে ফলে অনেক স্হানে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটছে। ইতিমধ্যে ভিডিও,ফুটেজ ও অডিও  রেকডিংয়ে ভরপুর হয়ে গেছে মোবাইলের মেমোরি,  সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে চলছে লাইক কমেন্টের প্রতিযোগিতা। কেনে চলর অ-ভাই শব্দ্ টি সমাজে বিরুপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি করলেও তারপরও সব কিছুকে পেছনে রেখা কিশোর, যুবক, বৃদ্ব সবার মূখে একটিই  কথা কেনে চলর অ-ভাই ।