ad

কাজের অতিরিক্ত সাড়ে ৪ কোটি টাকা ফেরত দিলেন ছাত্রলীগ নেতা

‘জাপানি সংস্থা প্রকল্পের টাকা ফেরত দিলে তাদের যদি প্রশংসার জোয়ারে ভাসাতে পারি তবে তৈয়ব ভাইকে আমরা কেন ধন্যবাদ দিচ্ছি না।’ নিজের ফেসবুক ওয়ালে কথাগুলো লিখেছেন মো. রিফাত আহমেদ নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী।

শুধু রিফাত নয় এই মুহূর্তে দেশের হাজার হাজার মানুষের ওয়ালে লেখায় ছবিতে নিজের ভালো কাজের জন্য প্রশংসায় ভাসছেন চট্টগ্রামের এই সাবেক ছাত্রলীগ নেতা। অথচ প্রকল্পের বরাদ্দকৃত টাকার মধ্যে মানসম্মত কাজ করে আবার উদ্বৃত্ত টাকা সরকারকে ফেরত দেয়ার নজির বাংলাদেশে খুঁজেও পাওয়া যায় না।

সূত্র জানায়, চট্টগ্রাম নগরের বায়েজিদ বোস্তামী এলাকায় সেনানিবাসের পাশে ‘বায়েজিদ সবুজ উদ্যান’ নামে একটি পার্ক গড়ে তুলেছে গণপূর্ত বিভাগ। প্রকল্পের বরাদ্দ ছিল ১২ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে ২০১৭ সালের এপ্রিলে কাজটি পায় চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবু তৈয়বের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। মানসস্মতভাবে আট কোটি ৩০ লাখ টাকায় কাজ শেষ করে বাকি চার কোটি ৪৪ লাখ টাকা গণপূর্ত বিভাগকে বুঝিয়ে দিয়েছেন আবু তৈয়ব।

ctg-bcl

কাজ শেষে গত মঙ্গলবার (৯ অক্টোবর) পার্কটি উদ্বোধন করেন সাবেক গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি। অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘সব ঠিকাদার খারাপ না। ভালো ঠিকাদারও রয়েছে গণপূর্তে। এর প্রমাণ হচ্ছে আবু তৈয়ব। বায়েজিদ উদ্যান নির্মাণ শেষে চার কোটিরও বেশি টাকা ফেরত দিয়েছে সে।’

এরপর থেকে বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হতে থাকে। ছাত্রলীগের চলমান কর্মকাণ্ডের মধ্যে আবু তৈয়বের এই কাজ প্রশংসার দাবি রাখে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে আবু তৈয়ব বলেন, ‘আমি মানসম্মতভাবে কাজ করে পার্কটি তৈরি করেছি। আমার যত টাকা খরচ হয়েছে বা যত লাভ করা উচিত তা করে বাকি টাকা ফেরত দিয়েছি। কেন আমি রাষ্ট্রের টাকা অপচয় করব? প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সোনার বাংলা গড়ে তুলতে চান সেখানে আমাদেরকেও অংশীদার হতে হবে।’

এ জন্য যার যার অবস্থান থেকে সকলকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন