কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতে দেখা মিলল বিরল প্রজাতির বিষাক্ত সাপ!

সাপটির পেটের রং হলুদ। দেহের উপরিভাগ কালো। এরা থাকে সমুদ্রে। কালো দেহে অদ্ভুত হলুদের ছোঁয়া থাকায় এ সাপ দেখতে খুব সুন্দর। আর এ জন্যই নাম হয়েছে হলুদ পেটযুক্ত সামুদ্রিক সাপ। ইংরেজি নাম yellow-belied sea snake. আর বৈজ্ঞানিক নাম hydrophis platuras. এটি অত্যন্ত বিষধর এবং এর ছোবলে মানুষ সহ অন্যান্য প্রাণি মারা যাওয়ার নজির রয়েছে অহরহ।

শুক্রবার সকালে এমন সাপের দেখা মেলে কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের সুগন্ধা পয়েন্টে।

সমুদ্র ভ্রমণে যাওয়া এক প্রত্যক্ষদর্শী কক্সবাজার সিটি কলেজের শিক্ষার্থী প্রাপ্তি দাশ টিটিএনকে জানান ,তিনি তার পরিবারের সাথে সকালের সমুদ্র অবলোকন করতে যান। সমুদ্র দর্শনের এক পর্যায়ে হঠাৎ চোখ পড়ে একটি সাপের দিকে। হঠাৎ জোয়ারের পানিতে ভেসে আসা সাপটি দেখতে পান বলে জানান তিনি। হলুদ পেটযুক্ত সামুদ্রিক সাপটির দৈর্ঘ্য আনুমানিক ১২ ইঞ্চি। সাপ দেখার সাথে সাথে তিনি তার নিজস্ব ফোনে ক্যামেরা বন্দী করে রাখেন দৃশ্যটি।

প্রাপ্তি দাশ আরো বলেন, ❝অন্যান্য সৈকতে এমন কিছু সাপ দেখলেও কক্সবাজারে কখনও কেউ দেখেছে বলে মনে হয় না। সকালে জোয়ারের পানিতে ভেসে আসতে দেখতে পাই স্রোতে তীরে এসেছে সাপটি। দেখতে বেশ সুন্দর লাগছিলে। যদিও জানি না বিষাক্ত নাকি, তবে লাইফ গার্ড কয়েকজন বলছিলো সামুদ্রিক সাপ বিষাক্ত হতে পারে। ❞

কালো দেহে অদ্ভুত হলুদের ছোঁয়া থাকায় এ সাপ দেখতে খুব সুন্দর। বাংলাদেশে যে কয়েকটা প্রজাতির সাপের দেখা মেলে তার মধ্যে একটা সামুদ্রিক সাপ। আর এই প্রজাতিগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বিষ ধরে ইয়েলো-বেলিড সি-স্নেক। সাধারণত এরা প্রশান্ত ও ভারত সাগরের গ্রীষ্মমন্ডলীয় অঞ্চলে বসবাস করে। সুত্র; টিটিএন

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন