কক্সবাজারে শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় নকল ; একজনের কারাদন্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজারে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অভিনব উপায়ে নকল করার দায়ে এক পরীক্ষার্থীকে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত। দন্ডিত ইব্রাহীম সদরের ঈদগাঁও ইউনিয়নের জাগির পাড়ার বাসিন্দা ও ঈদগাঁহ হাইস্কুলের ভাড়াটে শিক্ষক। তার পিতা হোছাইন আহমদ ইদগাঁও আলমাছিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় নৈশপ্রহরী পদে কর্মরত বলে জানা গেছে।
প্রাপ্ত তথ্যে প্রকাশ, (গতকাল) শুক্রবার অনুষ্ঠিত প্রাইমারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কক্সবাজার শহরের আমেনা খাতুন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা দিচ্ছিল উপরোক্ত ইব্রাহীম। পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে ঘনঘন টয়লেটে গেলে তাকে সন্দেহ করেন কর্মকর্তারা। পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ হলেও সে মোবাইল নিয়ে গেছে মর্মে সন্দেহ হলে কর্তব্যরত ম্যাজিষ্ট্রেট তাঁকে চ্যালেঞ্জ করেন। কিন্তু ব্যাপারটি অস্বীকার করে সে। পরে তার দেহ তল্লাশী করে মোবাইল ফোন ও ফোনের ম্যাসেজ ইনবক্সে পরীক্ষায় আগত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যায়। এভাবে অভিনব উপায়ে নকল করার বিষয়টি প্রমানিত হলে ভ্রাম্যমান আদালতে তাকে ১৫ দিনের কারাদন্ড দেয়া হয়।
ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ নোমান হোসেন জানান, আসদুপায় অবলম্বনের দায়ে উক্ত পরীক্ষার্থীকে কারাদন্ড দেয়া হয়েছে। দন্ডিত ব্যক্তিকে গতকালই জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেছে।