কক্সবাজারে বন্য হাতির আক্রমণে নিহত-১

শাহীন মাহমুদ রাসেল::
কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজায় বন্য হাতির আক্রমণে কালা মিয়া (৮২) নামে এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। বুধবার ভোর রাত সাড়ে ৩টার দিকে ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ জানারঘোনা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত কালা মিয়া ওই এলাকার বাসিন্দা মৃত নজির আহাম্মদের ছেলে।

নিহতের ছেলে ছৈয়দ হোসেন জানান, শনিবার ভোর সাড়ে ৩টার দিকে সে তাহাজ্জদ নামাজের উদ্দেশ্যে তার বাড়ির পার্শ্ববর্তী একটি টিউবওয়েল থেকে পানি সরবরাহ করতে গেলে বন্য হাতির কবলে পড়ে। সকালে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ঘটনাস্থল থেকে লাশটি উদ্ধার করে। পরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান টিপু সুলতান।

স্থানীয়ররা জানায়, জানার ঘোনায় গত এক বছর ধরে ৫ গ্রামে অন্তত ২০ হাজার মানুষের রাতের ঘুম হারাম করে দিয়েছে বন্য হাতি। এর আগে ওই এলাকায় হাতির আক্রমণে মুফিজুর রহমান নামের একজন নিহত হয়েছিলেন।

স্থানীয় যুবক ইদ্রিস জানান, দিনের বেলায় হাতি চাইন্দাঘোনা পাহাড়ের গহীনে লুকিয়ে থাকলেও রাত পোহালেই চলে আসছে লোকালয়ে। হাতির তান্ডব ঠেকাতে গ্রামে গ্রামে রাত জেগে পাহারাও বসিয়েছিলেন এলাকাবাসী।

ইউপি চেয়ারম্যান টিপু সুলতান বলেন, হাতি আতংকে মানুষের ঘুম হারাম হলেও হাতি তাড়াতে এখনও পর্যন্ত কার্যকর কোন পদক্ষেপ নেই প্রশাসনের। মূলত বিষয়টি বন বিভাগের আওতায় হলেও তারা গ্রামবাসীকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়ে দায় সেরেছে।

সূত্র জানায়, গত এক সপ্তাহ ধরে কয়েকটি হাতি রাতের বেলায় জানারঘোনা, মহুরি পাড়া, ফোটখালী, দক্ষিণ হাজিপাড়া গ্রামের কোন না কোন বাড়িতে হানা দিয়েছে। হাতি আতংকে এসব এলাকার মানুষ রাতের বেলায় খুব একটা ঘর থেকে বেরোচ্ছে না। আবার ঘরের মধ্যেও ভয়ে থাকতে হয় তান্ডবের। ২০ দিন আগে দক্ষিণ জানারঘোনা গ্রামে তান্ডব চালিয়ে একটি বাড়ির দেয়াল ভেঙ্গে ফেলে হাতি। হাতির ধাক্কায় এক বয়োবৃদ্ধ মহিলা আহত হন।

ad