কক্সবাজারে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে ৭৩০ জন

করোনার রেড জোন কক্সবাজার জেলায় টানা দেড়মাস ধরে আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যায় শীষে ছিল সদর উপজেলা। কিন্তু সবাইকে অবাক করে মঙ্গলবার মাত্র ৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। যা গত দুমাসের মধ্যে সবচেয়ে কম। গত তিনদিন ধরে সদরে আক্রান্তের পরিসংখ্যান হচ্ছে যথাক্রমে-৭১, ৫১ ও ১৯ ।

হঠাৎ  করোনার নিম্নগতিতে সদর সহ পৌরবাসীর মধ্যে কিছুটা স্বস্তি নেমে এসেছে। তবে আতঙ্কের খবর আড়াইমাস ধরে করোনা মুক্ত থাকা কুতুবদিয়ায় একদিনে ধরা পড়েছে ১৫ জন। আর আস্তে আস্তে করোনার হটস্পটে পরিণত হওয়া টেকনাফে একদিনে শনাক্ত হয়েছে ২০ জন এবং উখিয়ায় ১৮ জন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে জানা গেছে, গতকাল সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত মোট ৭৩০ জন সুস্থ হয়েছেন। মারা গেছেন ৩৫ জন, এদের মধ্যে পাঁচজন রোহিঙ্গা। আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের (কমেক) অধ্যক্ষ ডা. অনুপম বড়ুয়া এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘জেলায় নতুন করে ৭০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। সদর উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা কমেছে।’

নতুন শনাক্ত হওয়া করোনা আক্রান্তরা ৭০ জনই কক্সবাজারের বাসিন্দা। এদের মধ্যে সদর উপজেলার ৩, রামুর ২ জন, উখিয়ার ১৮ জন, টেকনাফের ২০ জন, চকরিয়ার ৫ জন, মহেশখালীর ৭ এবং কুতুবদিয়ার ১৫ জন বাসিন্দা।

আক্রান্ত মোট ২ হাজার ১৯৭ জনের মধ্যে কক্সবাজার সদর উপজেলার ৯৮৮ জন, রামুর ১৮৫ জন, উখিয়ার ২৬০ জন, টেকনাফের ১৯৫ জন, চকরিয়ার ৩০৭ জন, পেকুয়ার ৯২ জন, মহেশখালীর ৮৯ জন ও কুতুবদিয়ার ৩৫ জন বাসিন্দা।প্রসঙ্গত, কক্সবাজারে এখন পর্যন্ত ১৫ হাজার ৯৫২ জনের নমুনা পরীক্ষা হয়েছে।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন