‘কক্সবাজারে আরও দুটি আন্তর্জাতিক মানের স্টেডিয়াম হবে’

কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামকে ঢেলে সাজিয়ে আরো আধুনিকায়ন করার লক্ষ্যে ইতিমধ্যে কাজ শুরু হয়েছে জানিয়েছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

এছাড়া কক্সবাজারে আন্তর্জাতিকমানের আরো একটি ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও ফুটবল স্টেডিয়াম নির্মাণে সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানান প্রতিমন্ত্রী।

বুধবার সন্ধ্যায় কক্সবাজার শহরের হোটেল-মোটেল জোনের একটি অভিজাত হোটেলে বেসরকারি সংস্থা জাগো ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে আয়োজিত চতুর্থ জাতীয় যুব সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান বলেন, কক্সবাজার শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামকে ঢেলে সাজতে ইতিমধ্যে বিশেষজ্ঞ দল নিয়োগ দেয়া হয়েছে। বিশেষজ্ঞ দলটির মাঠ পর্যায়ের কাজ অনেকদূর এগিয়েছে।

“ দলটির মাঠ পর্যায়ের কাজ শেষ হলে মন্ত্রণালয়ে সুপারিশ আকারে প্রতিবেদন পেশ করবে। এরপরই স্টেডিয়ামটি ঢেলে সাজানোর কাজ শুরু করা হবে। ”

প্রতিমন্ত্রী বলেন, “ শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামটি প্রাকৃতিক অপরূপ দৃষ্টি নন্দন স্থানে অবস্থিত। খেলা দেখতে আসা দর্শকদের পাশাপাশি খেলোয়াড়রাও যাতে সমুদ্র সৈকতের নয়াভিরাম দৃশ্য দেখার উপভোগ থেকে বঞ্চিত না হন এ বিষয়টি মাথায় রেখে আধুনিকায়ন কাজ করা হবে। ”

ক্রিকেটসহ খেলাধুলার মাধ্যমে কক্সবাজারের পর্যটন শিল্পকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তুলে ধরতে সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে জানিয়ে জাহিদ আহসান বলেন, “ কক্সবাজারে আন্তর্জাতিকমানের আরো একটি ক্রিকেট স্টেডিয়াম এবং ফুটবল স্টেঢিযাম নির্মাণে সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে। এ ব্যাপারে সরকারের সংশ্লিষ্ট পর্যায়ে কাজ চলছে। ”

পাশাপাশি কক্সবাজারের বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্টেডিয়ামকে আধুনিকায়ন করে গড়ে তুলতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ নির্দেশনা রয়েছে বলে জানান প্রতিমন্ত্রী।

তরুণদের বিভিন্ন ক্ষেত্রে পারদর্শিতা অর্জন, দীর্ঘ মেয়াদে বিকাশ ও বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে ভূমিকা রাখার পাশাপাশি তরুণদের ক্ষমতায়নের জন্য উপযোগী প্ল্যাটফর্ম ‘জাতীয় যুব সম্মেলন’ উপলক্ষ্যে বুধবার কক্সবাজারে ৪ দিনব্যাপী কর্মসূচীর উদ্বোধন হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

অনুষ্ঠানে ঢাকায় নিযুক্ত যুক্তরাজ্যের ডেপুটি হাই কমিশনার কানবার হোসেন বর, কন্টেন্ট নির্মাতা ও ভিডিও ব্লগার ডিয়ার অ্যালেন, ইউএনডিপি বাংলাদেশের রেসিডেন্ট রিপ্রেসেন্টেটিভ সুদীপ্ত মুখার্জী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, এবারের সম্মেলনে সারাদেশ থেকে ৪ শতাধিক তরুণ অংশগ্রহণ করেছেন। সম্মেলনে নানা বিষয়ে ৩০ টি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফল, দক্ষ ও প্রতিনিধিত্বকারি ৭৫ জনের সমন্বয়ে গঠিত একটি প্যানেল সম্মেলনে অংশগ্রহণকারি তরুণদের প্রশিক্ষণ দান এবং বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেবেন।

এদিকে বুধবার বিকালে রামুর জোয়ারিয়ারনালা এলাকায় ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বিকেএসপি নির্মাণকাজ পরিদর্শন করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল।

এসময় স্থানীয় সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, রামু উপজেলার ইউএনও প্রণয় চাকমা, সহকারি কমিশনার (ভূমি) চাই থোয়াইলা চৌধুরী, জোয়ারিয়ানালা ইউপি চেয়ারম্যান কামাল শামসুদ্দিন আহমেদ প্রিন্সসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তা, রাজনৈতিক, ক্রীড়া ও সামাজিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন